বিদ্যুৎ ছাড়াই আলোক বিচ্ছুরণকারী উদ্ভিদ!

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক ॥ প্রাকৃতিক আলো তৈরীর প্রাথমিক ধাপ বলা যায় বিদ্যুৎ ছাড়াই আলো বিচ্ছুরণকারী উদ্ভিদকে। কৃত্রিম  জীববিজ্ঞান এবং জিনোম কমপ্লেয়ার সফটওয়ার ব্যবহার করে সহজে তৈরি করা যায় এই  উদ্ভিদ। গবেষণাগারে একদল বিজ্ঞানী উদ্ভাবণ করে ফেলেছেন আলো বিচ্ছুরণকারী এই  উদ্ভিদ।

glowing-plant

বিদ্যুৎবিহীন ভাবে ফল হতে আলো তৈরীতে একদল আলোক বিচ্ছুরণকারী উদ্ভিদ বিজ্ঞানী জীববিজ্ঞানকে এমনভাবে ব্যবহার করবেন যেখানে  সরিষা এবং বাধাকপির কোষ ও জীবনব্যবস্থায় এমন পরিবর্তন কৃত্রিমভাবে আসবে যাতে তা অন্ধকারে নিজেই উজ্জ্বল হয়ে উঠতে পারে। এই আশ্চর্যজনক প্রোজেক্টের  নাম গ্লোয়িং প্লান্টস।

যদিও যে সব জীবিত জীবকোষ থেকে আলো নির্গত হয় সেরকম জীবকোষ প্রকৃতিতে পাওয়া যায় না, তাই গ্লোয়িং প্লান্টস প্রোজেক্টের গবেষকরা দ্যুতিমান ব্যাক্টেরিয়ার ডিএনএ উদ্ভিদের ডিএনএ অনুক্রমের  সংযোগ ঘটিয়ে ইনজেকশনের মাধ্যমে প্রবেশ করিয়েছেন যা নতুন আলোক বিচ্ছুরণকারী কৃত্রিম উদ্ভিদ উদ্ভাবন সহায়ক ।

যদিও  শুনতে খুবই আশ্চর্যজনক, কিন্তু চাইলেই কোন উদ্ভিদ কোষে সিরিঞ্জ দিয়ে ডিএনএ ঢুকিয়ে দেয়া যায় না আর তাই বিজ্ঞানীগন উদ্ভিদে এমন এক ব্যাক্টিরিয়া স্থাপন করবেন যা নিজ থেকেই পরিবর্তন আনবে, আর সেসব ব্যাক্টেরিয়াকে বাঁচিয়ে রাখার জন্য রাখা হয় এক বিশেষ তরলে বীজের সাথে। ফলে যখন বীজ বপন করা হয় এবং সেখান থেকে গাছ হয়, তখন তা স্বাভাবিক দেখালেও আসলে অন্ধকারে সে গাছ থেকে  উজ্জ্বল আলো বের হয়।

এই প্রোজেক্টের প্রধান উদ্ভাবক অর্মি অমিরাভ ড্ররি একজন প্রাণরসায়নবিদ, জিনোম কমপ্লেয়ার এবং আণবিক জীববিজ্ঞানী কাইলো টেইলর।

30202923e3f8630ab392fd32b1a9ee15_large

যদিও এ উদ্ভিদের বীজ বাণিজ্যিকভাবে পাওয়া যাবে না, তবুও ব্যবসায়িক এবং গবেষণার স্বার্থে কিছু সুযোগ রেখেছেন সাধারণ মানুষদের জন্য।

> যেসব মার্কিন জনগন ২০১৩ সালের ৭ই জুনের মধ্যে  ৪০ মার্কিন ডলার বা তার বেশি অনুদান দিবেন , তারা পর্যায়ক্রমে ৫০ টি হতে ১০০ টি বীজ লাভ করবেন, যা তারা নিজেদের বাসার পিছনের বাগানে রোপন করতে পারবেন এবং পাবেন  নির্দেশিকাও  যেখানে  সঠিক ভাবে বীজ রোপন, চারা ও গাছের পরিচর্চার কৌশল সম্পর্কে দেয়া থাকবে।

> কেউ যদি ১২০ মার্কিন ডলার অনুদান হিসাবে প্রেরন করেন, তবে তিনি পেতে পারেন একটি পরিপূর্নভাবে গজানো গাছ।

উল্লেখ্য, গ্লোয়িং প্লান্টস প্রোজেক্টের দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা হচ্ছে উদ্ভিদসমূহ থেকে যে আলো আসবে তা বৈদ্যুতিক আলোকে রুপান্তরিত করা ।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...