The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

আবারও মর্গে মৃতদেহ জেগে উঠার খবর!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ এর আগেও এমন ঘটনা ঘটেছে। ঠিক তেমনেই একটি ঘটনার সূত্রপাত ঘটেছে। আবারও মর্গে মৃতদেহ জেগে উঠার খবর পাওয়া গেছে!

morgue

এবারের ঘটনাটি এমন, মৃত্যু পরবর্তী গোসলের জন্য মর্গে নিয়ে যাওয়া হয় এক ব্যক্তিকে। তারপর জেগে উঠেছে সেই ‘মৃতদেহ’টি। অবিশ্বাস্য এই ঘটনা ঘটেছে পাকিস্তানের ইদি ফাউন্ডেশনের মর্গে।

সংবাদ মাধ্যমের খবরে জানা যায়, দাফন কাফন করতে অক্ষমতার জন্য ৫৫ বছর বয়সী নারী মনজুরার মৃতদেহ তার পরিবার ইদি ফাউন্ডেশন মর্গে নিয়ে যায়। সেখানে এক নারী কর্মীর কাছে গোসলের জন্য তার মৃতদেহ হস্তান্তরও করা হয়। এরপরই ওই নারী কর্মী দেখতে পান যে, ‘মৃতদেহ’টি শ্বাস নিচ্ছে। এটা দেখে মনজুরার আত্মীয়-স্বজনকে ডাকাডাকি শুরু করে সে।

সংবাদ মাধ্যমকে ইদি ফাউন্ডেশনের এক কর্মকর্তা বলেছেন, যেসব পরিবার তাদের আত্মীয়দের মৃতদেহ দাফন কাফনে অক্ষম তাদেরকে ইদি ফাউন্ডেশন হতে বিনামূল্যে দাফন কাফনের যাবতীয় ব্যবস্থা করা হয়।

জানা যায়, মনজুরার স্বামী বশির একটি পোল্ট্রি খামারে দিন মজুর হিসেবে কাজ করে। পাকিস্তানের গণমাধ্যম ডন বলেছে, মর্গে নেওয়ার সময় ওই নারী ছিল সম্পূর্ণ অচেতন। তবে স্ট্রেচারে উঠানোর পরপরই সে আবার জ্ঞান ফিরে পায়।

উক্ত বশির জানায়, তার স্ত্রী রবিবার সন্ধ্যা হতে অসুস্থ বোধ করলেও আর্থিক অস্বচ্ছলতার কারণে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া সম্ভব হয়নি। একটি ওষুধের দোকানে গিয়ে তার জন্য কিছু ওষুধ নিয়ে আসেন। রাত ৩টার দিকে তার স্ত্রীর অবস্থার অবনতি হতে থাকলে বশির তার পোল্ট্রি খামারের সুপারভইজারকে ডেকে তার স্ত্রীকে হাসপাতালে নিতে সহায়তা চান। ওই সুপারভাইজার তার স্ত্রীর অবস্থা দেখে তাদেরকে কালিমা পড়তে বলেন। এরপরই অজ্ঞান হয়ে পড়ে মনজুরা। এরপর মনজুরার শ্বাস প্রশ্বাস বন্ধ হয়ে যায়। এমতাবস্থায় তাকে মৃত ভেবে প্রতিবেশিদের সহায়তায় দাফন কাফনের জন্য মর্গে নিয়ে যাওয়া হয়।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...