বিয়ে নিয়ে পরীমনির প্রতিক্রিয়া: ‘১০০ টাকা দিলে ১৯৯টা কাবিননামা পাওয়া যায়’

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ মিডিয়াতে কাবিন নামার বিষয়টি প্রকাশ পাওয়ার পর বিয়ে নিয়ে পরীমনি তার এক প্রতিক্রিয়ায় বলেছেন, ‘১০০ টাকা দিলে ১৯৯টা কাবিননামা পাওয়া যায়’।

Marriage context pari mani

গত ক’দিন ধরে ফেসবুকে পরীমনির এক কাজিনের সঙ্গে জড়িয়ে প্রথমে ছবি প্রকাশ এবং পরে একটি কাবিননামা প্রকাশ করে বলা হচ্ছিল, তার স্বামীর নাম সৌরভ কবীর। তারসঙ্গেই নাকি পরীমনির বিয়ে হয়েছিল। তাতে আরও বলা হয়, তাদের নাকি বিয়ে হয় ২০১২ সালের ২৮ এপ্রিল। ৩ বছর প্রেম করার পর তারা নিজেদের ইচ্ছায় বিয়ে করেন। পরবর্তীতে দুই পরিবার এই বিয়ে মেনেও নেন। তার সেই কথিত স্বামীর বাসা যশোরের কেশবপুরে।

Marriage context pari mani-2

এবার এসব সামনে এলে পরীমনি এগুলোকে মিথ্যে দাবি করে বলেন, ‘এসবের সত্যতা প্রমাণ করেই ছাড়বো।’ পরীমনি বলেন, ছবিগুলো ভুয়া। একইসঙ্গে তিনি বলেন, ‘এইসব কাবিননামা ১০০ টাকা দিলে ১৯৯টা বানানো যায়।’ গত কয়েকদিন পরীমনির বেশকিছু অন্তরঙ্গ ছবি ভাইরাল হয়ে দেখা দেয়। কিন্তু পরীমনি সেই ছবি সম্পর্কে বলেছিলেন, আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে এই ছবিগুলো ছড়ানো হয়েছে। তিনি দাবি করেন, আমি আমার পরিচিত সবার সঙ্গেই ঘনিষ্ঠভাবে ছবি তুলি। এটাকে আমার দুর্বলতা ভেবে একটা চক্র সুযোগ নিচ্ছে বলে মন্তব্য করেন পরীমনি।

গতকাল সোমবার এ সংক্রান্ত একটি খবর দি ঢাকা টাইমস্ এ প্রকাশিত হয় যার শিরোনাম ছিল “বিয়ের কাবিননামা সোশ্যাল মিডিয়াতে: পরীমনি এখন কি করবেন?”

Marriage context pari mani-3

উল্লেখ্য, খুব কম সময়ের মধ্যে বাংলার চলচ্চিত্র জগতে জনপ্রিয়তা অর্জন করেন নায়িকা পরীমনি। তার ছবি মুক্তির আগেই তিনি জনপ্রিয়তার শীর্ষে উঠে আসেন। তার এই কম সময়ে জনপ্রিয়তার কারণেই অনেকেই এমন সুযোগ নিতে পারেন বলে চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা মনে করছেন।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...