নান্দনিক মসজিদ ও আমাদের কিশোর-তরুণ সমাজ

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ শুভ সকাল। শুক্রবার, ২২ এপ্রিল ২০১৬ খৃস্টাব্দ, ৯ বৈশাখ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ, ১৪ রজব ১৪৩৭ হিজরি। দি ঢাকা টাইমস্ -এর পক্ষ থেকে সকলকে শুভ সকাল। আজ যাদের জন্মদিন তাদের সকলকে জানাই জন্মদিনের শুভেচ্ছা- শুভ জন্মদিন।

mosques and our teenage-young

আজকের এই ছবিটি একটি সৌন্দর্যপূর্ণ মসজিদ। নান্দনিক ও মনোমুদ্ধকর একটি মসজিদ এটি। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এমন নান্দনিক মসজিদ রয়েছে।

আমাদের দেশের কিশোর-তরুণ সমাজের অবক্ষয়ের বড় একটি কারণ হলো তাদেরকে মসজিদ হতে দূরে রাখা। কিশোর-তরুণদেরকে আমরা যদি মসজিদের উঠানে কিংবা পাশের মাঠে খেলতে না দেই বা মসজিদের সঙ্গেই আধুনিক লাইব্রেরি, সর্বাধুনিক কম্পিউটারের ব্যবস্থা না করে দেই, তাহলে তারা দিনের বেশিরভাগ সময় কাটাবে রেস্টুরেন্টে, ভিডিও গেমের দোকানে কিংবা সাইবার ক্যাফেতে। এসব জায়গা উদ্দেশ্যমূলকভাবে তৈরি করা হয়েছে তাদেরকে দুনিয়ার প্রতি আসক্ত করে তোলার জন্য। তাদের পকেটের টাকা শেষ করে, তাদেরকে অবাধে অশ্লীল কাজ করার সুযোগ করে দেওয়ার জন্য এমনটি করা হয়ে থাকে। যদি আমরা মসজিদগুলোকে কিশোর-তরুণদের জন্য সুন্দর করে সাজাতে পারতাম, তাহলে কিশোর-তরুণদের দৈনন্দিন রুটিন কতো সুন্দর হতো। তারা যেমন ধর্মের পথে থাকতো, তেমনি স্বভাব ও চরিত্র হতো প্রকৃত মানুষ হিসেবে যা হওয়া দরকার ঠিক তেমন। আসুন আমরা শিশু-কিশোরদের মসজিদে যাওয়ার অভ্যাস গড়ে তুলি।

ছবি: quranerkotha.com -এর সৌজন্যে।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...