১০৩ বছর বয়সে আজগর আলী প্রথম ভোট দিলেন!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ ভোট দেওয়ার অধিকার আমাদের নাগরিক অধিকার। তাছাড়া প্রথম ভোট দেওয়ার আনন্দও অন্যরকম এক অনুভূতি। ছিটমহল জটিলতার কারণে সেই ভোট হতে বঞ্চিত ছিলেন অনেকেই। এমনই এক ব্যক্তি আজগর আলী। তিনি ১০৩ বছর বয়সে প্রথম ভোট দিলেন!

103-year-old Asghar Ali gave first vote

ভারতের কোচবিহারের দিনহাটা বিধানসভার অন্তর্গত আজগর আলী ১০৩ বছর বয়সে তার জীবনের প্রথম ভোটটি দিলেন। এর কারণ হলো এতোদিন বাংলাদেশের ছিটমহলের বাসিন্দা ছিলেন আজগর আলী।

২০১৫ সালের ১ অগাস্ট ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে ছিটমহল বিনিময়ের পর শুধু আজগর আলীই নয়, ৯৭৭৬ জন ভোটার এবার প্রথম ভোট দিতে পারলেন।

আশ্চর্যের বিষয় হলো আজগর আলীর সঙ্গে তার নিজের পরিবারের তিন প্রজন্মের সদস্যরাও ভোট দেন। বর্তমানে তিনি ভারতের মশালডাঙ্গার বাসিন্দা। নির্বাচন কমিশনের ব্যবস্থাপনায় বিশেষ গাড়িতে চড়ে এদিন ভোট দিতে যান আজগর আলী। বুথের ভেতরে ঢুকে কিছুটা বিব্রতকর অবস্থায় পড়েন ওই বৃদ্ধ। নির্বাচন কমিশনের এক আধিকারিকের সাহায্যে ভোট দেন আজগর আলী। এরপর বেরিয়ে এসে ভি-চিহ্নও দেখান আজগর আলী। সে সময় তাকে দেখে মনে হয় জীবনের শেষপ্রান্তে এসে নাগরিক অধিকার প্রয়োগ করতে পেরে তিনি যেনো সার্থক!

ভারতবর্ষ স্বাধীন হওয়ার কিছুদিন আগেই বাবার হাত ধরে বাংলাদেশের ময়মনসিংহ হতে কোচবিহারের মধ্য-মশালডাঙ্গায় এসেছিলেন আজগর আলী। সঙ্গে এসেছিলেন তার মা ও ভাই। কিছুদিন এই এলাকায় বসবাসের পরে ময়মনসিংহে ফিরে যান তার মা ও ছোট ভাই।

তবে আজগর আলী বাবার সঙ্গে মধ্য-মশালডাঙ্গায় থেকে যান। সেখানেই বিয়ে করেন ও নিজের সংসার গড়েন। বর্তমানে আজগর আলীর স্বপ্ন হলো শেষজীবনে এলাকার উন্নয়ন নিজ চোখে দেখে যেতে চান।

Advertisements
Loading...