এইচএসসি ২০১৬: ২৫টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সবাই ফেল!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ গতবছরের তুলনায় এবার পাসের হার বেশি। আবার জিপিএ’র হারও বেড়েছে, তথাপিও দেশের ২৫টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সবাই ফেল করেছে!

HSC 2016, 25 educational institutions fail

আজ (বৃহস্পতিবার) ২০১৬ সালের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা ফল প্রকাশিত হয়েছে। সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে ফলাফলের অনুলিপি তুলে দেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। এ সময় শিক্ষামন্ত্রী জানান, এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় এবছর ২৫টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সবাই ফেল করেছে।

শিক্ষামন্ত্রী বলেছেন, গত বছর শূন্য পাশ করা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ছিল ৩৫টি। গত বছরের তুলনায় এবার শূন্য পাস করা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা কমেছে ১০টি।

এবার সারাদেশে ৮টি সাধারণ শিক্ষাবোর্ড, মাদ্রাসা ও কারিগরি বোর্ডে এইচএসসি পরীক্ষায় পাসের গড় হার ৭৪.৭০ শতাংশ। মাদ্রাসা বোর্ডে পাসের হার ৮৮.১৯ শতাংশ ও কারিগরি শিক্ষা বোর্ডে এবার পাসের হার ৮৪.৫৭ শতাংশ।

গতবারের তুলনায় এবার পাসের হার বেশি। গত বছর গড় পাসের হার ছিল ৬৯.৬০ শতাংশ। তাই গত বছরের তুলনায় এবার পাসের হার বৃদ্ধি পেয়েছে ৫ দশমিক ১০ শতাংশ। এবছর জিপিএ ৫ পেয়েছে ৫৮ হাজার ২৭৬ জন। গতবছর জিপিএ-৫ পেয়েছিল মোট ৪২ হাজার ৮৯৪ জন।

এ বছর (২০১৬) বোর্ডওয়ারী পাসের হার:

ঢাকা বোর্ড ৭৩.৫৩ জিপিএ ২৮,১১০ জন।
চট্টগ্রাম বোর্ড ৬৪.৬০ জিপিএ ২,২৫৩ জন।
রাজশাহী বোর্ড ৭৫.৪০ জিপিএ ৬.০৭৩ জন।
কুমিল্লা বোর্ড ৬৪.৪৯ জিপিএ ১,৯১২ জন।
দিনাজপুর বোর্ড ৭০.৬৪ জিপিএ ৩.৮৯৯ জন।
সিলেট বোর্ড ৬৮.৫৯ জিপিএ ১.৩৩০ জন।
বরিশাল বোর্ড ৭০.১৩ জিপিএ ৭৮৭ জন।
যশোর বোর্ড ৮৩.৪২ জিপিএ ৪,৫৮৬ জন।
মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড ৮৮.১৯।
কারিগরি শিক্ষা বোর্ড ৮৪.৫৭।

গত বছর (২০১৫) বোর্ডওয়ারী পাসের হার:

ঢাকা বোর্ড ৬৮.১৬
চট্টগ্রাম বোর্ড ৬৩.৫৯
রাজশাহী বোর্ড ৭৭.৬৪
কুমিল্লা বোর্ড ৫৯.৮০
যশোর বোর্ড ৪৬.৪৫
দিনাজপুর বোর্ড ৭০.৪৩
মাদ্রাসা শিক্ষা বোড ৯০.১৯
কারিগরি শিক্ষা বোর্ড ৮৫.৫৮
সিলেট বোর্ড ৭৪.৫৭
বরিশাল বোর্ড ৭০.০৬

এবারের ফলাফলে মেয়েরা অনেক ভালো করেছে।

এবছর এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা ৩ এপ্রিল শুরু হয়ে শেষ হয় ২২ জুন। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নিয়ম অনুযায়ী, ৬০ দিনের মধ্যে ফল ঘোষণার নিয়ম। সেই নিয়ম রক্ষার চেষ্টা করছে কর্তৃপক্ষ। এবার পরীক্ষায় আটটি সাধারণ শিক্ষাবোর্ড, মাদ্রাসা ও কারিগরি বোর্ড মিলিয়ে মোট ১২ লাখ ১৮ হাজার ৬২৮ জন পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নেন। গত বছরের তুলনায় এবছর পরীক্ষার্থীর সংখ্যা বেড়েছে ১ লাখ ৪৪ হাজার ৭৪৪ জন।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...