এবার বাজারে পাওয়া যাবে প্রেম মাপার যন্ত্র!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ এখন থেকে আর মিথ্যা বলে প্রেমিক বা প্রেমিকাকে ধোকা দেওয়া যাবে না। কে কার প্রতি কতোখানি প্রেমে আসক্ত তা এবার অনায়াসে ধরা যাবে। এমনই একটি প্রেম মাপার যন্ত্র বাজারে আসতে চলেছে!

imosan-detectors

এতোদিনও আমাদেরকে ধারণার ওপর নির্ভর করতে হতো। কারণ কাওকে প্রেমের নিবেদন করলে সেই প্রেমিক বা প্রেমিকা সব সময় বলতেন তার প্রেম অত্যন্ত গাঢ়। কিন্তু আসলেও সে সত্যি বলছে নাকি মিথ্যা বলছে তা ধরা সম্ভব হতো না। যে কারণে অনেক সময় সিদ্ধান্ত নিতেও হিমশিম খেতে হয় অনেককে। দ্বিধা-দ্বন্দ্বে থাকেন অনেকেই। এমন একটি সংকট সমাধানে এবার উদ্ভাবিত হয়েছে ‘ইমোশনার ডিটেক্টর’ নামক একটি প্রেম মাপার যন্ত্র!

এই বিশেষ যন্ত্রটি আবিষ্কার করেছেন ল্যাংকাস্টার বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা। এই যন্ত্র ত্বক, হার্ট রেট ও চোখের তারা পরীক্ষা করে বলে দেবে, কেও আপনাকে আদৌ ভালবাসে কি না!

শুধু তাই নয়, আবিষ্কৃত এই ছোট্ট মেশিনটি জুড়ে দেওয়া যাবে স্মার্টফোনের সঙ্গেও। অবিশ্বাস্য মনে হলেও, এই বিষয়টি সত্যি এবং খুব শীঘ্রই এটি বাজারে আসছে।

তবে এই যন্ত্রের আগমনের কারণে ভেকধারী রোমান্সের যে বারোটা বেজে যাবে তাতে কোনো সন্দেহ নেই। তবে অনেকেই প্রশ্ন তুলেছেন, ভালোবাসা যদি যন্ত্রই মেপে দেবে, তাহলে মন কী করবে?

আবার প্রশ্ন উঠেছে, কেও হয়তো আপনাকে সত্যিই ভালোবাসেন। তবে তার মেজাজ হয়তো তখন তিক্ত ছিলো। তা হলে মেশিন কী করে তাৎক্ষণিক সেই খোঁজ দেবে? আবার এমনও হতে পারে যে, কারও হয়তো যথার্থভাবে আপনাকে ভালো লাগে। তবে ভালোবাসার প্রগাঢ় পর্যায়ে তিনি পৌঁছাননি এখনও। তারজন্য আরও একটু সময় লাগবে। এই অবস্থায় যন্ত্র দিয়ে মাপতে গেলে গণনায় ভুল হবে অনিবার্য। অনেকেই এমনভাবে বলছেন যে, রহস্য না-থাকলে রোমান্সের রইলটাই বা কী?

যে কারণে হবু প্রেমের আঁচ পেতে কেও এই যন্ত্রের ব্যবহার করবেন, এমন আশা আপাতত করা যাচ্ছে না। তবে একটি ক্ষেত্রে এই যন্ত্রটি কাজে আসতে পারে। এমন বহু ক্ষেত্রেই হয় যে, সম্পর্কে শরীরি উষ্ণতা রয়েছে অনেক। তবে তাতে মনের গভীরতা রয়েছে কতোটুকু, সেটির কূল-কিনারা পাওয়া যাচ্ছে না। এইসব ক্ষেত্রে এই যন্ত্র কাজে লাগানে যেতে পারে বলে অনেকেই ধারণা করছেন। তবে বাজারে আসার পর প্রকৃতপক্ষে বোঝা যাবে কিভাবে কাজ করবে আর কতখানি কাজ করবে এই নতুন আবিষ্কৃত প্রেম মাপার যন্ত্রটি! সব কিছু সময়ই বলে দেবে।

Advertisements
Loading...