The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

এবার মুরগি গেলো কারাগারে!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ মানুষকে অপরাধ করলে তার শাস্তি স্বরূপ জেলখানায় যেতে হয়। কিন্তু তাই বলে মুরগির মতো অবলা পশুকেও সেই অপরাধী হিসেবে চিহ্নিত হতে হচ্ছে!

chicken-was-sent-to-jail

কী অপরাধ ওই মুরগির? তার অপরাধ হলো সে দিনের ব্যস্ত সময়ে হঠাৎ রাস্তায় চলে এসেছিল। ব্রিটেনের দুন্দির ইস্ট মার্কেটগেট টেসাইড পুলিশের কাছে কয়েকজন গাড়ি চালক ওই মুরগির গতিবিধি নিয়ে ঠিক এমন এক অভিযোগ করেন।

চালকদের অভিযোগ, মুরগিটি রাস্তার মাঝখানে এদিক-ওদিক বিক্ষিপ্ত অবস্থায় চলাফেরা করায় সকলেই চিন্তায় পড়েছেন। মুরগির গতিবিধি দেখে গাড়ি চালাতে হচ্ছে তাদের। যে কারণে ওই জায়গায় গাড়ির গতি কমে যায় এবং মাঝে মধ্যেই যানজট সৃষ্টি হয়।

গাড়ি চালকদের নিকট হতে এ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যান এক পুলিশ অফিসার। তিনি দেখেন, রাস্তা জুড়ে নিজের খেয়ালমতো ঘুরে বেড়াচ্ছে একটি মুরগি। চালকরা মুরগিটিকে গাড়ির ধাক্কা হতে বাঁচাতে ধীরে ড্রাইভ করছেন। পুলিশ অফিসার কোনোমতে মুরগিটিকে ধরতে সমর্থ হন। তারপর মুরগিটিকে থানায় নিয়ে গিয়ে সোজা লকআপে পুরে দেন। ওই মুরগিকে ধরতে তো ততক্ষণে পুলিশ অফিসার ঘেমে-নেয়ে একাকার অবস্থা!

টেসাইড পুলিশ বিভাগ হতে পরে জানানো হয় মুরগিটির বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ রয়েছে। কারণ হলো সে দিনের ব্যস্ত সময়ে যেভাবে অবিবেচকের মতো রাস্তায় চলে এসেছিল, সেটা সত্যিই অন্যায়। যে কারণে ট্র্যাফিক চলাচলে বিভ্রাট তৈরি হয়েছিল। এমনকী যে কোনো মুহূর্তে বড় ধরনের কোনো দুর্ঘটনাও ঘটে যেতে পারতো বলে জানিয়েছে টেসাইড পুলিশ।

তবে মুরগির মালিককে খুঁজছে পুলিশ। সেজন্য তাদের ফেসবুক পেজেও বিষয়টি উল্লেখ করা হয়েছে বলে সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত এক খবরে বলা হয়েছে!

Loading...