রমজানের খেজুরে রয়েছে বহু গুণাগুণ

পাকা খেজুরে প্রায় ৮০% চিনিজাতীয় উপাদান রয়েছে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ শুভ সকাল। মঙ্গলবার, ১৩ জুন ২০১৭ খৃস্টাব্দ, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ১৭ রমজান ১৪৩৮ হিজরি। দি ঢাকা টাইমস্ -এর পক্ষ থেকে সকলকে শুভ সকাল। আজ যাদের জন্মদিন তাদের সকলকে জানাই জন্মদিনের শুভেচ্ছা- শুভ জন্মদিন।

রমজান মাস এলে খেজুরের কথা মনে পড়ে। যদিও খেজুর সারা বছরই পাওয়া যায়। তবে রোজা এলে খেজুরের কদর বাড়ে।

মূলত খেজুর নামটি এসেছে প্রাচীন গ্রিক ভাষা dáktulos হতে। খেজুরের ফল অনেকটা ডিম্বাকৃতির। দৈর্ঘ্য ৩-৭ সে.মি. ও ব্যাসার্ধে ২-৩ সে.মি.। প্রজাতির উপর নির্ভর করেই মূলত কাচা ফল উজ্জ্বল লাল বা উজ্জ্বল হলুদ বর্ণের হয়ে থাকে।

এক তথ্যে জানা যায়, পাকা খেজুরে প্রায় ৮০% চিনিজাতীয় উপাদান রয়েছে। বাদ-বাকী অংশে খনিজ সমৃদ্ধ ও বোরন, কোবাল্ট, ফ্লুরিন, ম্যাগনেসিয়াম, ম্যাঙ্গানিজ, সেলেনিয়াম, জিঙ্কের ন্যায় গুরুত্বপূর্ণ খাদ্য উপাদান রয়েছে এই খেজুরে।

খেজুরের আরেকটি ভালো দিক হলো খেজুর শক্তির একটি ভালো উৎস। তাই খেজুর খাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই শরীরের ক্লান্তিভাব দূর হয়ে যায়। এতে রয়েছে প্রচুর ভিটামিন বি। এক গবেষণায় দেখা গেছে, ভিটামিন বি সিক্স মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা বৃদ্ধিতে সহায়ক।

ভিটামিন এ’র আরেকটি গুণ হলো এটি চোখের দৃষ্টিশক্তি বাড়াতে সাহায্য করে। তাছাড়া রাতকানা রোগের ঝুঁকিও কমায় এই ভিটামিন এ। তাছাড়া খেজুরের জিয়াজানথিন উপাদান বার্ধক্যজনিত কারণে দৃষ্টিশক্তি কমে যাওয়ার ঝুঁকিও কমিয়ে থাকে।

খেজুরে রয়েছে প্রচুর ভিটামিন কে, যা কাটা-ছেড়ায় রক্তক্ষরণ রোধ করতে অর্থাৎ রক্ত জমাট বাঁধাতে বিশেষভাবে সাহায্য করে। তাছাড়া হজম ও হাড়ের গঠনেও সাহায্য করে এই উপাদানটি।

ছবি ও তথ্য: http://www.newsbangladesh.com এর সৌজন্যে।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...