শুয়ে থাকার চাকরি: বেতন ১১ লাখ টাকা!

ফ্রান্সের স্পেস মেডিক্যাল রিসার্চ ইন্সটিটিউট এই জব প্রোফাইলে উপযুক্ত প্রার্থী খোঁজা হচ্ছে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ শুয়ে থাকার জন্য চাকরিতে নেওয়া হবে। তাকে বেতন দেওয়া হবে ১১ লাখ টাকা! এমন কথা শুনে অলস জাতি হিসেবে খ্যাত বাঙালিরা হয়তো লাফিয়ে উঠবেন। ওঠাও স্বাভাবিক, তবে ঘটনাটি সত্যি। ২০ থেকে ৪৫ বছর যাদের বয়স তারা আবেদন করতে পারবেন!

এই চাকরির শর্ত হলো টানা দু’মাস শুয়ে থাকতে হবে। সটান শুয়ে থাকা ছাড়া তার আর কোনো কাজ থাকবে না। এটাই তার চাকরি। বেতন দেওয়া হবে ১১ লাখ টাকা। ফ্রান্সের স্পেস মেডিক্যাল রিসার্চ ইন্সটিটিউট এই জব প্রোফাইলে উপযুক্ত প্রার্থী খোঁজা হচ্ছে। একজন মানুষ শুয়ে থাকা অবস্থায় যে ভার্চুয়াল ওয়েটলেসনেস আসবে তাতে মাইক্রোগ্র্যাভিটির প্রভাব দেখতে চান গবেষকরা। গবেষকরা জানিয়েছেন, মহাকাশ গবেষণায় এই কাজ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

এই কাজের জন্য উপযুক্ত ব্যক্তিদের বয়স হতে হবে ২০ হতে ৪৫ বছর। ওই ব্যক্তির ধূমপানের অভ্যাস থাকলে চলবে না। থাকা চলবে না অ্যালার্জির প্রবণতা। এরকম বিবিধ শারীরিক পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর বাছাই করে ২৪ ব্যক্তিকে নিয়োগ দেওয়া হবে। তাদের দুই মাস শুইয়ে রাখা হবে। কোনো অবস্থাতেই ভূমিতে পা রাখা চলবে না। অবশ্য শয্যায় সে এদিক-ওদিক করতে পারবেন। তবে একটি কাঁধ সব সময় স্পর্শ করে থাকতেই হবে বিছানাকে। শুনতে এই চাকরি স্বপ্নের চাকরি মনে হলেও খুব একটা সহজ নয়। কারণ শোয়া অবস্থাতেই করতে হবে দাঁত মাজা, স্নান করা, খাওয়া-টয়লেটসহ যাবতীয় শারীরবৃত্তীয় প্রক্রিয়ার সবকিছুই। সেইসঙ্গে চলতে থাকবে বহু পরীক্ষা-নিরীক্ষা।

এই ব্যক্তিরা দু’মাস পর যখন শয্যা হতে ভূমিতে প্রথম পা রাখবেন তখন দেখা দিতেই পারে নানারকম শারীরিক সমস্যা। হাড়ের ঘনত্ব কমে যাওয়া, মাংসপেশিতে সমস্যা এমনকি মাটিতে পা ফেলার সমস্যার মতো কিছু উপসর্গ বা বিপত্তি দেখা দিতে পারে। তার জন্য পারিশ্রমিকও দেওয়া হচ্ছে লোভনীয়। দুই মাসে তিনি পাবেন ১১ লাখ টাকা! আপনিও একবার ট্রাই করে দেখতে পারেন..।

Loading...