বাল্যবিয়ে প্রতিরোধে ‘এভ্রিল ফান্ড’ গঠন করলেন এভ্রিল

বাংলাদেশের আর কোনো নারীর জীবনে যেনো এমনটি কখনও না ঘটে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হয়েও তাকে শেষ পর্যন্ত পরাজিত হতে হয়েছে জান্নাতুল নাঈম এভ্রিল। তিনি সংবাদ মাধ্যমকে বলেছেন, একটি ভুলের জন্য অনেক কিছু হারিয়েছি। তিনি বাল্যবিয়ে প্রতিরোধে ‘এভ্রিল ফান্ড’ নামে চ্যারিটি ফাউন্ডেশনও গঠন করেছেন।

জান্নাতুল নাঈম এভ্রিল। মাত্র ১৬ বছর বয়সে যাকে পরিবার জোর করে বাল্যবিয়ে দিয়েছিলেন। আর সে কারণে ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হয়েও তাকে হারাতে হয়েছে মুকুটটি।

নিজের জীবন থেকে যে শিক্ষা পেয়েছেন, বাংলাদেশের আর কোনো নারীর জীবনে যেনো এমনটি কখনও না ঘটে। সেজন্য পদক্ষেপও নিয়েছেন এভ্রিল। বাল্যবিয়ে প্রতিরোধে ‘এভ্রিল ফান্ড’ নামে চ্যারিটি ফাউন্ডেশনও গঠন করেছেন তিনি। ইতিমধ্যেই ফাউন্ডেশনটির জন্য একটি টিমও তৈরি করেছেন। সারাদেশে বাল্যবিয়ে প্রতিরোধে এই টিমটি কাজ করবে। সেইসঙ্গে মিডিয়াতে কাজ করে তিনি যে পারিশ্রমিক পাবেন সেটি ফান্ডে জমা রাখার কথাও জানিয়েছেন।

জান্নাতুল নাঈম এভ্রিল বলেছেন, ‘ওই একটি ভুলের জন্য আজ আমি অনেক কিছু হারিয়েছি। আর কারও জীবনে এমন তিক্ত অভিজ্ঞতা আসুক তা আমি চাই না। আমার এই ফাউন্ডেশনটি গ্রামে গ্রামে গিয়ে জনসচেতনতা বৃদ্ধি করবে। কিছু নারী ভলান্টিয়ারও সঙ্গে নেবো। এই ফাউন্ডেশনের খরচ জোগাতে আমার আয় হতে ৭৫ শতাংশ সেখানে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আশা করছি, সাধারণ মানুষও আমার পাশে থাকবে।

জান্নাতুল নাঈম এভ্রিল আরও বলেছেন, ছোটবেলা থেকেই ইচ্ছা ছিল পথ শিশুদের জন্য কিছু একটা করার। তাদের অসহায়ত্ব আমাকে সত্যিই খুব ব্যথিত করে। আমার মতো যেসব মেয়ে আছে যাদের কোনো পরিচয় নেই, যাদের সমাজে কোনো সম্মানই দেওয়া হয় না, আমি তাদের জন্য কাজ করতে চাই। যতোদিন বেঁচে থাকবো ততোদিন আমি এই কাজের মধ্যে থাকতে চাই।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...