স্মার্ট ব্যান্ডেজ শরীরের ক্ষত সারাবে খুব দ্রুত!

এটি বানিয়েছেন ইউনিভার্সিটি অফ নেবরাস্কা-লিংকন, হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটি ও এমআইটি’র একদল বিজ্ঞানী

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ স্মাটযুগে এবার সকলকে তাক লাগাতে এসেছে স্মাট ব্যান্ডেজ। এই স্মার্ট ব্যান্ডেজ শরীরের ক্ষত সারাবে খুব দ্রুত! এটি বানিয়েছেন ইউনিভার্সিটি অফ নেবরাস্কা-লিংকন, হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটি ও এমআইটি’র বিজ্ঞানীরা।

শরীরের ক্ষত খুব দ্রুত সারিয়ে তুলতে এবার তৈরি করা হয়েছে স্মার্ট ব্যান্ডেজ। এটি বানিয়েছেন ইউনিভার্সিটি অফ নেবরাস্কা-লিংকন, হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটি ও এমআইটি’র একদল বিজ্ঞানী।

ইতিমধ্যেই এটি নিয়ে পরীক্ষাও চালাচ্ছেন তারা। সাধারণত কোথাও কেটে গেলে কয়েকবার ব্যান্ডেজ পরিবর্তন করা হয়। সেই সঙ্গে হয়তো অয়ান্টিসেপ্টিক ক্রিম কিংবা হাইড্রোজেল ব্যবহার করা হয়। নতুন ব্যান্ডেজটি এই কাজগুলোই করবে অটোম্যাটিকভাবেই!

একবার স্মার্ট ব্যান্ডেজটি জায়গা মতো লাগানোর পর স্মার্টফোন হতে কমান্ড দিলে নিজে হতেই ক্ষতস্থানে ওষুধ লাগাবে এই ব্যান্ডেজটি। ব্যান্ডেজের সাধারণ সুতা বা অন্যান্য ফাইবারের বদলে বৈদ্যুতিক হিটার এবং ফাইবারের সমন্বয় ব্যবহার করা হয়েছে এটিতে।

আর এটি ঢাকা হয়েছে তাপসংবেদী ওষুধের আস্তর দিয়ে। তবে অন্যান্য সাধারণ ব্যান্ডেজের মতোই কাজ করে এটি। ক্ষতকে বাইরের ধূলা-বালি হতে রক্ষা করা। আরও এরসঙ্গে যুক্ত মাইক্রোকন্ট্রোলারে স্মার্টফোনের মাধ্যমে কমান্ড দিলে ব্যান্ডেজে ভোল্টেজ সরবরাহ হয়, যে কারণে ফাইবার গরম হয়ে ওষুধ ক্ষতে লাগে।

অবশ্য বিজ্ঞানীদের তরফ হতে বলা হয়েছে, সাধারণ মানুষের জন্য সাধারণ ব্যান্ডেজগুলোই যথেষ্ট কাজ করে। তবে এই স্মার্ট ব্যান্ডেজ তাদের জন্য বানানো হয়েছে, যাদের ক্ষত সহজে সারছে না কিংবা প্রতিদিন ব্যান্ডেজ পরিবর্তন করা অসম্ভব ব্যাপার হয়ে দাঁড়াচ্ছে তাদের জন্য।

Loading...