ভাগ্য বটে: লটারিতে পেলেন ৪১ কোটি টাকা!

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অস্কানা জাহারভ নামে এক মহিলা ভাগ্যের জোরে জিতে গেলেন ৫০ লাখ ডলারের লটারি

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ কার ভাগ্যে কি আছে তা কখনও বলা যায় না। কেও ধনী থেকে গরীব, আবার কেও গরীব থেকে রাতারাতি হয়ে যায় ধনী। এমনই এক ভাগ্যবান নারী, যিনি লটারীতে পেয়েছেন ৪১ কোটি টাকা!

সংবাদ মাধ্যমের খবরে জানা গেছে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অস্কানা জাহারভ নামে এক মহিলা ভাগ্যের জোরে জিতে গেলেন ৫০ লাখ ডলারের লটারি। যা বাংলাদেশী টাকায় ৪১ কোটি টাকা! এই ভাগ্যবান ব্যক্তির ছবিটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। কথায় বলা হয় ভাগ্যে থাকলে আর ঠেকায় কে? কথাটিই যেনো সত্যি প্রমাণিত হলো মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অস্কানা জাহারভের জীবনে। ভাগ্যের জোরেই তিনি জিতে নিলেন ওই ৫০ লাখ ডলারের লটারি।

সত্যি অস্কানার ভাগ্যই বটে! কিছুদিন পূর্বে ম্যানহাটনের এক সুপার শপে কেনাকাটা করতে যান অস্কানা। সেখান থেকে একটি ১ ডলার মূল্যের লটারির টিকিট কেনেন অস্কানা। তবে বিক্রেতা বিল করার সময় ভুল করেই হোক বা ইচ্ছে করেই হোক তাকে গছিয়ে দেন ১০ ডলার মূল্যের অন্য আরেকটি লটারির টিকিট!

অস্কানা বলেছেন, ‘যখন বিক্রেতা আমাকে অন্য টিকিট গছিয়ে দিলেন, আমার মোটেও ভালো লাগেনি। তবে ভাবলাম, থাক; নিয়ে নিলাম সেটি।’

এনডিটিভি অনলাইনের খবরে বলা হয়, লটারির পুরস্কারটি কি তা জানার জন্য টিকিটের একটি বিশেষ অংশ ঘষতে হয়। অস্কানা তা না করে অবহেলায় ফেলে রাখেন সেটি। টিকিটটি তিনি বইতে ‘বুকমার্ক’ হিসেবে ব্যবহারও করতে লাগলেন। লটারির টিকিট থেকে যে আসলেই পুরস্কার জেতা যায়, তা বিশ্বাসই ছিল না অস্কানার। তবে শেষ পর্যন্ত যখন পুরস্কার দেখার জন্য টিকিট ঘষলেন, বেরিয়ে এলো ভাগ্য বদলের সেই জ্যাকপট!

৪৬ বছর বয়স্ক অস্কানা জাহরভ আনন্দে আত্মহারা হয়ে বলেন, ‘আমি কখনও কিছুই জিততে পারেনি। আমি নিশ্চিত ছিলাম যে এটি হয়তো ভুয়া। নিশ্চিত হওয়ার জন্য লটারির আয়োজকদের অফিসে যাওয়ার পর জানতে পারি, না- এটি সত্যি। আসলেই ৫০ লাখ ডলার জিতে গেছি আমি।’

অস্কানা জানিয়েছেন, পুরস্কারের অর্থ দিয়ে পরিবার নিয়ে বাহামা দ্বীপপুঞ্জে বেড়াতে যাবেন। সন্তানদের ঋণমুক্ত কলেজ শিক্ষা দিতেও কাজে লাগাবেন এর কিছু অর্থ। এভাবে পরিকল্পনা করেছেন ৪১ কোটি টাকার লটারি বিজয়ী যুক্তরাষ্ট্রের অস্কানা জাহারভ।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...