রাগের চোটে জীবন্ত সাপের মাথা চিবিয়ে খেলো এক যুবক!

সাপের মাথার অংশ চিবিয়ে খাওয়ার কারণেই বেহুঁশ হয়ে পড়েছিলেন সোনেলাল

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ রাগ হলে মানুষ সব কিছুই করতে পারে। সেই প্রমাণ দিলো এক যুবক। রাগের চোটে এক যুবক জীবন্ত সাপের মাথা চিবিয়ে খেয়েছে!

রাগ এমন একটি জিনিস যা এক কথায় বলা যায় ভয়ঙ্কর। রাগের মাথায় অনেক কিছুই করা সম্ভব। রাগের মাথায় এক যুবক এমনই একটি কাজ করে বসলেন। ওই যুবক রাগের মাথায় জীবন্ত সাপের মাথা চিবিয়ে খেয়েছে! তবে এই অসম্ভবকে সম্ভব করেছেন ভারতের উত্তরপ্রদেশের হরদোইয়ে সোনেলাল নামে জনৈক যুবক।

ওই যুবক সোনেলালকে বেহুঁশ হয়ে পড়ে থাকতে দেখে সঙ্গে সঙ্গে অ্যাম্বুলেন্স করে স্থানীয় স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে যায় সোনেলালের প্রতিবেশীরা। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা জানান যে, সোনেলালকে সাপ কামড়েছে। সেই মতো সোনেলালের শারীরিক পরীক্ষাও করা হয়।

রাতে জ্ঞান ফেরার পর কি হয়েছিলো জানতে চাইলে সোনেলাল জানান, সন্ধ্যায় গোয়াল ঘরে তিনি গরু-বাছুরদের দেখভালের কাজ করছিলেন। সেই সময় তাকে একটি সাপ কামড় দেয়। তাতেই তিনি প্রচণ্ড রেগে যান। এরপর সাপটিকে ধরে তার মাথায় কামড়ে দেন তিনি। এরপর সাপের মাথা ছিঁড়ে চিবিয়ে ফেলেন। মুখ থেকে তা ফেলে দেওয়ার পর বেহুঁশ হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন সোনেলাল।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন যে, সোনেলালকে ওষুধ দেওয়া ছাড়াও নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। মাথার অংশ চিবিয়ে খাওয়ার কারণেই বেহুঁশ হয়ে পড়েছিলেন সোনেলাল।

সোনেলালের এই ঘটনা শোনার পর তাকে দেখতে হাসপাতালে স্থানীয় মানুষের ভিড় জমে যায়। স্থানীয় এক ব্যবসায়ী মুকেশ গুপ্ত বলেছেন, আমি তো বিশ্বাসই করতে পারছি না যে, কীভাবে একজন মানুষ সাপকে কামড়াতে পারে!

এই বিষয়ে উত্তরপ্রদেশের মেন্টাল হেলথ সোসাইটির সচিব এসসি তিওয়ারি বলেছেন, এটা কখনও কোনও মানুষের স্বাভাবিক আচরণ হতে পারে না। একমাত্র ভয়ানক আগ্রাসী কিংবা মানসিক বিকারগ্রস্ত হলেই এমন কাজ করতে পারেন। তবে প্রতিবেশীদের অনেকেই বলেছেন, সোনেলাল প্রকৃতপক্ষে একজন নেশাগ্রস্ত মানুষ, তাই সে সবকিছুই করতে পারে।

Advertisements
Loading...