The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

চীনের স্বামী ‘জমা রাখার’ সার্ভিস ক্রমেই জনপ্রিয় হচ্ছে!

একটি শপিং মলের দেখাদেখি এখন অনেকেই এই সার্ভিসটি চালুর উদ্যোগ নিয়েছেন

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ সত্যিই বিচিত্র এই পৃথিবী! প্রতিনিয়ত ঘটছে নানা রকম ঘটনা। কিছু কিছু ঘটনা মানুষকে বিস্মিত করে এবং অবাক করে। এমনই একটি ঘটনা হলো স্বামী ‘জমা রাখার’ সার্ভিস! এই সার্ভিসটি চীনে ক্রমেই জনপ্রিয় হয়ে উঠছে।

চীনের স্বামী 'জমা রাখার' সার্ভিস ক্রমেই জনপ্রিয় হচ্ছে! 1

অফিসের যাওয়ার জন্য অনেক নারী তার সন্তানকে ‘ডে কেয়ার’ সেন্টারে রেখে যায় এমন প্রচলন আমাদের দেশেও রয়েছে। কিন্তু তাই বলে স্বামী ‘জমা রাখার’ সার্ভিস! পৃথিবীতে প্রতিনিয়ত কতো রকম ঘটনায় না ঘটছে। এসব ঘটনার কথা শুনলে আশ্চর্য না হয়ে পারা যায় না। এমনই একটি ঘটনা হলো স্বামী ‘জমা রাখার’ সার্ভিস! বিশ্বের অদ্ভুত এই সেবাটি প্রথমবারের মতো চালু করা হয় চীনে। এই সেবার নাম হলো স্বামী ‘জমা রাখার’ সার্ভিস। এটি বর্তমানে বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। একটি শপিং মলের দেখাদেখি এখন অনেকেই এই সার্ভিসটি চালুর উদ্যোগ নিয়েছেন।

সাধারণভাবে নারীরা শপিংয়ে যাওয়ার সময় তাদের স্বামীদের সঙ্গে করে নিয়ে যান। যে কারণে কেনাকেটার সময় স্বামীরা তাদের স্ত্রীদের পেছন পেছন এ দোকান থেকে ও দোকানে ঘুরতে থাকেন। এতেকরে স্বামীরা বেশ বিরক্ত হয়ে পড়েন। এক্ষেত্রে ওইসব স্বামীদের যাতেকরে আর এমন অযথা হাঁটার কষ্ট করতে না হয় সেজন্যই নতুন একটা উদ্যোগ নিয়েছে চীনের একটি শপিংমল কর্তৃপক্ষ। ওই শপিংমলে যেসব নারীরা শপিংয়ে যাবেন, সেখানে তাদের স্বামীকে ‘জমা’ রাখার বিশেষ ব্যবস্থা করা হয়!

জানা যায়, সাংহাই এর গ্লোবাল হার্বার মলে বেশ কিছু গ্লাস পড ও কাঁচের খোপ তৈরি করে সেখানে বিশেষ ব্যবস্থা করা হয়। ওই ‘গ্লাস পডে’ স্বামীদের জন্য নানা বিনোদনের ব্যবস্থাও রাখা হয়। সেখানে তারা ইচ্ছে করলেই বসে বসে গেম খেলতে পারবেন। প্রতিটি গ্লাস পডের ভেতরে রয়েছে একটি করে চেয়ার, মনিটর, কম্পিউটার এবং গেম প্যাড। সেখানে বসে তারা নব্বই দশকের পুরোনো গেমগুলোও খেলতে পারবেন সময় কাটানোর সময়টিতে!

গ্লোবাল হার্বার শপিং মলটির কর্তৃপক্ষ বলেছেন, এই সার্ভিসটি প্রথমদিকে ফ্রি দেওয়া হলেও পরবর্তীতে চার্জ ধরা হয়। এই সার্ভিস ব্যবহার করেছেন এমন কয়েকজন পুরুষ সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন, তারা ব্যাপারটি বেশ পছন্দ করেছেন।

তবে শপিং মলটির এই সার্ভিস নিয়ে চীনা সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপক কৌতুক চলছে। এই সার্ভিস আরও বিভিন্ন জায়গায় সম্প্রসারণ করা যায় কিনা জানতে চেয়েছেন অনেকেই।

তবে স্বামী ‘জমা রাখার’ ব্যবস্থা নিয়ে পুরুষরা উৎসাহিত হলেও নারীরা বেশ হতাশা প্রকাশ করেছেন। তাদের দাবি হলো, স্বামী যদি কেবল বসে বসে মজার মজার গেম খেলতে চান, তাকে শপিং এ নিয়ে যাওয়ার অর্থ কি? তাহলে তাদের পয়সা খরচ করে সেখানে নিয়ে গিয়ে কী লাভ আমাদের?”

এদিকে চীনের এই সেবাটি বর্তমানে বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। একটি প্রতিষ্ঠানের দেখাদেখি আরও কিছু শপিং মল কর্তৃপক্ষ এই সার্ভিসটি চালুর উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। তারা মনে করেন, এই সেবাটি চালু করলে তাদের শপিং মলে নির্বিঘ্নে নারীরা মার্কেটিং করতে পারবেন। তাদের বেচা-কেনা আরও বাড়বে। যে কারণে তারা এমন একটি উদ্যোগের বাস্তবায়ন করতে চান।

উল্লেখ্য, চীনের শপিং মল কর্তৃপক্ষ যখন প্রথম এই উদ্যোগ গ্রহণ করে তখন দি ঢাকা টাইমস এ এই সংক্রান্ত একটি খবর প্রকাশ করা হয়েছিলো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...