পোকার ঘুম ভাঙলো ৪০ হাজার বছর পর!

বরফের তলায় পাওয়া গেছে দু’টি পোকা

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ অবশেষে পোকাটির ঘুম ভাঙলো, তবে ৪০ হাজার বছর পর! এ যেনো কল্পকাহিনীকেও হার মানায়। শুনতে যেনো আজগুবি মনে হয়।

রিপ ভ্যান উইঙ্কল দীর্ঘ সময় ঘুমিয়ে ছিলেন। এবার এমনই ঘটনা ঘটলো বাস্তব জীবনে। ৪০ হাজার বছর পর ঘুম হতে জেগে উঠলো এক পোকা! অনেকটা কল্পকাহিনীর মতোই!

বরফের তলায় পাওয়া গেছে দু’টি পোকা। যাদের বয়স ৩২ হাজার এবং ৪০ হাজার বছর! এই দীর্ঘ সময় ধরে তারা ঘুমিয়ে ছিলো! অবশেষে তারা জেগে উঠেছে। ঘটনা দেখে বিস্মিত হয়েছেন বিজ্ঞানীরা।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম ‘ফার্স্টপোস্ট’-এ প্রকাশিত হয়েছে একটি প্রতিবেদন। ‘ডোকলেডি বায়োলজিক্যাল সায়েন্সেস’ নামে ওই জার্নালেও প্রকাশিত হয়েছে ওই প্রতিবেদনটি।

খবরে জানা গেছে, রাশিয়ান বিজ্ঞানীদের একটি দল এই প্রাচীন পোকার ঝাঁককে আবিষ্কার করেছেন। কোনও বহুকোষী প্রাণীর ক্ষেত্রে এমন দীর্ঘদিন ধরে ঘুমিয়ে থাকার রেকর্ড এই পর্যন্ত নেই।

বিজ্ঞানীরা বরফের ভিতর হতে ৩০০-রও বেশি নমুনা সংগ্রহ করেছেন। তারমধ্যে দু’টি নমুনা ওই ঘুমন্ত পোকাদের। জেনাস প্যানাগ্রোলাইমাস প্রায় ৩২ হাজার বছরের পুরনো পোকা।

এটি রাশিয়ার উত্তর-পূর্বে আলাজেইয়া নদী হতে সংগ্রহ করা হয়। একটি নমুনা উত্তর-পূর্ব সাইবেরিয়ার কোলিমা নদী হতে সংগ্রহ করা হয়। যার বয়স ৪০ হাজার বছর!

জানা গেছে, বরফের আস্তরণ সরানোর পরে ধীরে ধীরে স্পন্দিত হতে থাকে পোকাগুলি। প্রথমে কয়েক সপ্তাহ তাদের উপরে লক্ষ্য রাখা হয়েছিলো। তারপর তাদের ২০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে রাখা হয়। তাদের খাবারও দেওয়া হয়। পোকাগুলি সেই খাবার গ্রহণও করে। পরে এরা অযৌন পদ্ধতিতে সন্তানের জন্মও দিয়েছে।

তবে বিজ্ঞানীরা এখনও নিশ্চিত নন এই প্রাচীন পোকাগুলির থেকে কোনও রোগ ছড়াতে পারে কি না সে বিষয়ে।

Advertisements
Loading...