বিশ্বের সবচেয়ে ছোট ল্যাপটপ ‘জিডিপি পকেট মিনি’

এর আকৃতি এতটাই ছোট যে এটিকে আপনি পকেট ল্যাপটপও বলতে পারেন।

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ প্রযুক্তির উৎকর্ষতায় দিন দিন প্রতিটি জিনিসের কার্যক্ষমতা বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং সেই সাথে আকৃতি ছোট হচ্ছে। প্রথমে যখন কম্পিউটার তৈরি করা হয়েছিল তার আকৃতি ছিল ছিল অনেক বড়। দিনদিন তার আকৃতি ছোট হতে হতে এক সময় কম্পিউটার রুপ নিল ল্যাপটপে।

আর সেই ল্যাপটপ ছোট হতে হতে এতটাই ছোট হয়েছে যে এখন একটি ল্যাপটপকে অনাসায়ে পকেটে রাখা যায়। আজ আমরা বিশ্বের সবচেয়ে ছোট ল্যাপটপের সাথে পরিচিত হব।

‘জিডিপি পকেট মিনি’ নামের এই ল্যাপটপে রয়েছে অন্যসব ল্যাপটপের মত পূর্ণাঙ্গ ফিচার। মাত্র ৭ ইঞ্চি লম্বা আকৃতি এই ল্যপটপটি খুব সহজেই বহন করা যায়। আকৃতি ছোট হলেও এই ল্যাপটপে অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে ব্যবহার করা হয় উইন্ডোজ টেন। এতে রয়েছে ১ দশমিক ৬ গেগাহার্জ ক্ষমতার ইন্টেলের অ্যাটম প্রসেসর যা ২ দশমিক ৫ গেগাহার্জ পর্যন্ত পারফর্ম করতে পারে। আরো রয়েছে প্রফেশনাল কী বোর্ড, ১২৮ জিবি হার্ডডিস্ক স্টোরেজ সহ ৮ জিবি র‍্যাম যা আপনাকে দ্রুত কাজ করতে সাহায্য করবে।

৭ ইঞ্চির এই ডিসপ্লের রেজুলেশন ১৯২০ বাই ১০৮০ পিক্সেল যা একটি ফুল এইচডি ডিসপ্লে। সুতরাং যেকোন মুভি বা ছবি এইচডি ফিচারে দেখতে পারবেন। সেই সাথে রয়েছে ইন্টেলের এইচডি গ্রাফিক্স যা আপনাকে গেম খেলা এবং ফটো ইডিটিংয়ের মত কাজগুলো খুব সহজেই করতে সাহায্য করবে। ফাইল ট্রান্সফার বা ইন্টারনেটের জন্য রয়েছে ওয়াইফাই এবং ব্লুটুথ সুবিধা যা আপনাকে অন্যসব ল্যাপটপের মত দ্রুত গতিতে নেট ব্রাউজ করতে সাহায্য করবে।

অন্য ডিভাইসের সাথে সংযোগ করার জন্য সব ধরণের পোর্ট রয়েছে। ফলে বড় মনিটর, প্রিন্টার বা স্ক্যানারের সাথে অনাসায়ে সংযোগ করে কাজ করতে পারবেন। ল্যাপটপ মানেই সেটি বয়ে নিয়ে যাওয়ার সুবিধা রয়েছে। তাই বিদ্যুৎ সংযোগ ছাড়ায় সেটিকে দীর্ঘক্ষণ কাজ করার ক্ষমতা সম্পন্ন হতে হবে। এই মিনি ল্যাপটপে ৭০০০ মিলি অ্যাম্পিয়ার ক্ষমতা সম্পন্ন ব্যাটারি রয়েছে যা ফুল চার্জ হতে মাত্র দেড় ঘন্টা সময় লাগে। এই চার্জে আপনি বিদ্যুৎ সংযোগ ছাড়া ১২ ঘন্টা ব্যাকআপ সুবিধা পাবেন।

আমাদের দেশে নতুন কোন প্রযুক্তি আসতে অনেকদিন সময় লেগে যায়। তাই এই জিডিপি পকেট মিনি ল্যাপটপ পেতে হলে অনলাইনে অন্য দেশ থেকে ক্রয় করে আমদানি করতে হবে।

Advertisements
Loading...