রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে মিয়ানমারকে অভিযুক্ত করলো কানাডা

রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে যে অপরাধ সংঘটিত হয়েছে, সেটি গণহত্যা

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে মিয়ানমার সেনাবাহিনী জাতিগত নির্মূল অভিযান চালানোর কারণে গণহত্যা সংঘটিত হয়েছে বলে ঘোষণা করতে সর্বসম্মতভাবে ভোট দিয়েছেন কানাডার আইনপ্রণেতারা।

মূলত এটির মধ্যদিয়ে মিয়ানমারে জাতিসংঘের ফ্যাক্ট-ফাইন্ডিং মিশনের তথ্য-উপাত্তে অনুমোদন দিয়েছেন দেশটির হাউস অব কমনস সদস্যরা।

জাতিসংঘের গবেষকরা জানিয়েছেন, সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলমানদের ওপর এক মানবতাবিরোধী অপরাধ সংঘটিত হয়েছে। মিয়ানমার সেনাবাহিনীর শীর্ষ কর্মকর্তারা সেই অপরাধকে আবার সমর্থন করেছেন।

কানাডার আইনপ্রণেতারা বলেছেন, তারা দেখতে পেয়েছেন যে, রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে যে অপরাধ সংঘটিত হয়েছে, সেটি গণহত্যা। তাই এই ঘটনায় আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতে বিচার করতে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদেও আহ্বান জানিয়েছেন তারা।

কানাডার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ক্রিস্টিয়া ফ্রিল্যান্ড বলেছেন, রোহিঙ্গারা যাতে ন্যায়বিচার পান ও অপরাধীরা যাতে জবাবদিহিতার আওতায় আসে, সে কারণে একটি আন্তর্জাতিক চেষ্টার নেতৃত্ব দিচ্ছি আমরা। এই সর্বসম্মত ভোট সেই চেষ্টারই একটি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ হিসেবে দেখা হচ্ছে।

উল্লেখ্য যে, গত বছরের আগস্টে রাখাইনে নিরাপত্তা বাহিনীর বেশ কিছু স্থাপনায় ‘বিদ্রোহীদের’ হামলার পর রোহিঙ্গাদের গ্রামে গ্রামে শুরু হয় সেনাবাহিনীর বিশেষ অভিযান। এই ঘটনায় দেশটির সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে হত্যা, ধর্ষণ, গুমসহ নানা অভিযোগ ওঠে। যে কারণে শুরু হয় বাংলাদেশ সীমান্তের দিকে রোহিঙ্গাদের ঢল। গত এক বছরে ৭ লাখের বেশি রোহিঙ্গা প্রাণ বাঁচাতে বাংলাদেশে আশ্রয় গ্রহণ করেছে।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...