১৬ নভেম্বর মুক্তি পাচ্ছে ‘মিস্টার বাংলাদেশ’ [ট্রেলার]

এই ‘মিস্টার বাংলাদেশ’ সিনেমার মূল বিষয় হলো জঙ্গীবাদ

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ ৩ মিনিট ১১ সেকেন্ডের ট্রেলারটিতে উঠে এসেছে বাংলাদেশের কালো অধ্যায়ের এক গল্প! পুরো ছবিটি মুক্তি পাচ্ছে আগামী ১৬ নভেম্বর শুক্রবার।

‘একজনের প্রতিশোধ দেশের প্রতিবাদ’ এই স্লোগানকে সামনে রেখেই ‘মিস্টার বাংলাদেশ’ ছবির ট্রেলার প্রকাশ করা হয়েছে গত ৫ নভেম্বর। ৩ মিনিট ১১ সেকেন্ডের ট্রেলারটিতে উঠে এসেছে বাংলাদেশের কালো অধ্যায়ের এক গল্প!

ট্রেলারটির শুরু হয়েছে আল-কোরানের বাণী দিয়ে! সুরা আল মায়িদাহ হতে উদ্ধৃতি করা হয়েছে ‘যে একজন নিরপরাধ ব্যক্তিকে হত্যা করলো সে যেনো সমস্ত মানব জাতিকেই হত্যা করলো এবং যে একজন নিরপরাধ ব্যক্তির জীবন রক্ষা করলো সে যেনো সমগ্র মানব জাতীকেই রক্ষা করলো।’ নির্মাতার ভাষ্য হলো, আল-কোরআনের এই আয়াতটুকুর মধ্যেই লুকিয়ে রয়েছে ‘মিস্টার বাংলাদেশ’ সিনেমার মূল ভাবধারা।

এই ‘মিস্টার বাংলাদেশ’ সিনেমার মূল বিষয় হলো জঙ্গীবাদ। জঙ্গীবাদের আস্ফালনে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ আজ ঢুঁকরে ঢুঁকরে মরছে। বিপন্ন বিশ্ব মানবতা। ধর্মের নামে উগ্রবাদীতার কারণে বহু দেশ আজ নাস্তানাবুদ। জঙ্গীবাদের এমন ভয়ঙ্কর চর্চা স্পর্শ করে গেছে এই বাংলাদেশকেও।

বাংলাদেশের প্রেক্ষাগৃহগুলোতে একযোগে বোমা বিস্ফোরণ, রমনার বটমূলে বোমা হামলা, বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে বোমার আঘাতসহ সর্বশেষ রাজধানীর হলি আর্টিজানে ভয়ঙ্কর হামলার ঘটনা বাঙালিদের হৃদয়ে ক্ষতচিহ্ন এঁকে দিয়েছে।

এসব ক্ষতাক্ত ঘটনায় যেনো উঠে এসেছে ‘মিস্টার বাংলাদেশ’ চলচ্চিত্রটিতে। টুকরো টুকরো দৃশ্যে এমনটাই দেখা গেছে ‘মিস্টার বাংলাদেশ’ ছবির ট্রেলারেও।

যেখানে দেখা যায় যে, একজন বলছেন, ‘এই দেশে শরিয়াহ আইন প্রতিষ্ঠা করাই হবে আমাদের জিহাদি রাষ্ট্র কায়েমের একমাত্র উদ্দেশ্য।’ ধর্মের কথা বলে অসংখ্য সহজ-সরল যুবাদের জড়ো করা হয়। এইসব তরুণদের উদ্বুদ্ধ করা হয় জান্নাতের প্রলোভন দেখিয়ে।

‘ওই দেখ জান্নাত’! তরুণদের মস্তিস্ক এমনভাবে ধুলাই করা হয় যেনো মুহূর্তেই নিজের জীবন বিলিয়ে দেওয়ার জন্য ঝাঁপিয়ে পড়তে পারে নওজুয়ানরা। মিশনে যাওয়ার সময় তাই একজন আরেকজনের কাছ থেকে বিদায়ও নেন এই বলে যে, জান্নাতে গিয়ে দেখা হবে!

আসলে কাদের জীবন দেখানো হয়েছে সিনেমায়? কারা জঙ্গীবাদের পথ বেছে নেন? কিসের উদ্দেশ্যে ধর্মের নামে এই অরাজকতা তৈরি করেন তারা? কাদেরকে উদ্দেশ্য করে বা সুরা মায়িদাহ’র উদাহরণ টানা হয়েছে এই ‘মিস্টার বাংলাদেশ’ ছবিতে?

ইসলাম কী কখনও ধর্মের নামে মানব হত্যাকে সমর্থন করে? ইসলাম কী জঙ্গীবাদের শিক্ষা দেয়?- এসব অসংখ্য প্রশ্নের উত্তর পাওয়া যাবে ‘মিস্টার বাংলাদেশ’ সিনেমার মধ্যে। এমনটাই বলছিলেন ছবির প্রযোজক এবং অভিনেতা খিজির হায়াত খান।

সেজন্য অপেক্ষা করতে হবে আগামী ১৬ নভেম্বর পর্যন্ত। কারণ এদিন মহাসমারোহে বাংলাদেশের প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেতে চলেছে ‘মিস্টার বাংলাদেশ’ চলচ্চিত্রটি।

দেশের পতাকা বুকে ধারণ করে জঙ্গিবাদ নিমূর্লে মাঠে নেমেছে ‘মিস্টার বাংলাদেশ’। প্রেম ভালোবাসা পরিবারের গল্প, নাচ গান, মারামারি সবই ভেসে উঠেছে ‘মিস্টার বাংলাদেশ’ এর এই ট্রেলারে। ছবিটি পরিচালনা করছেন আবু আকতারুল ইমান।

ছবির কাহিনী এবং চিত্রনাট্য করেছেন নির্মাতা খিজির হায়াত খান এবং হাসনাত পিয়াস। ছবির বিভিন্ন চরিত্রে আরও অভিনয় করেছেন লাক্স তারকা শানু, টাইগার রবি, শামীম আহসান সরকার প্রমুখ।

দেখুন ভিডিওটি

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...