জয়া ভারতের নাগরিকত্ব পেতে চান

দুই বাংলায় জনপ্রিয় এক অভিনেত্রীতে পরিণত হয়েছেন জয়া আহসান

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ দুই বাংলাতেই সমানভাবে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছেন এবার বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী জয়া আহসান। ওপারে অর্থাৎ কোলকাতাতে গিয়ে একের পর এক চলচ্চিত্রে অভিনয় করে পাচ্ছেন ব্যাপক খ্যাতি। তাই ভারতের নাগরিকত্ব পেতে চান জয়া আহসান।

দুই বাংলাতেই সমানভাবে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছেন এবার বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী জয়া আহসান। ওপারে অর্থাৎ কোলকাতাতে গিয়ে একের পর এক চলচ্চিত্রে অভিনয় করে পাচ্ছেন ব্যাপক খ্যাতি। তাই ভারতের নাগরিকত্ব পেতে চান জয়া আহসান।

এপার বাংলায় যেমন জনপ্রিয় ঠিক তেমনি ওপার বাংলায় জনপ্রিয় এক অভিনেত্রীতে পরিণত হয়েছেন জয়া আহসান। আর তাই দুই বাংলাতেই সমান ব্যস্ত অভিনেত্রী জয়া আহসান। ‘বিসর্জন’ ছবির সফলতার পর এবার পরিচালক কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায় আনেন ‘বিজয়া’ নামে নতুন চলচ্চিত্রে। এই ছবিতেও দর্শকদের ভালোবাসা পাবেন জয়া আহসান- এমন আশা প্রকাশ করা হয়েছে। নতুন বছর অর্থাৎ জানুয়ারিতেই মুক্তি পাবে ‘বিজয়া’।

সংবাদ মাধ্যমের সঙ্গে সব সময় কথা বলেন জয়া আহসান। কখনও এড়িয়ে যান না তিনি। ব্যস্ততা থাকলেও তার মনোভাব জানাতে কুণ্ঠাবোধ করেন না জয়া। তিনি সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন, বাংলাদেশে যেমন দর্শক তার কাজ খুব পছন্দ করেন, ঠিক তেমনি ওপার বাংলা থেকেও অনেক ভালোবাসা পেয়েছেন তিনি। তাই ভারত সরকারের অনুমতি পেলে জয়া আহসান দু’দেশেরই নাগরিকত্ব নিতে চান।

ওপার বাংলায় কাজ করে জয়া অনেক কিছুই শিখেছেন বলে জানান সাংবাদিকদের। তিনি আরও জানান, অনেকের সঙ্গেই কাজ করতে চান আগামী দিনগুলোতে। কাজের ব্যাপারে তিনি খুবই দুঃসাহসী বলা যায়।

জয়ার বক্তব্য হলো, ওপার বাংলায় সহজেই সবাইকে ‘তুই’, ‘তুমি’ বলা সম্ভব, কিন্তু বাংলাদেশে এমন হয় না। তবে এই ডাকে যে ভালোবাসা রয়েছে তা তিনি খুব উপভোগ করেন বলে জানিয়েছেন সংবাদ মাধ্যম এবেলাকে।

Advertisements
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
Loading...