প্রসঙ্গ সাভার ট্র্যাজেডির রেশমা ॥ ডেইলি মেইল ও মিররে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ জানাবে বাংলাদেশ

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক ॥ গতকালের দেশের খবরের প্রধান উপজিব্য ছিল সাভার ট্র্যাজেডির রেশমা উদ্ধার। রেশমা উদ্ধার নিয়ে ডেইলি মেইল ও মিররে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ জানাবে বাংলাদেশ।

Savar-0001

প্রতিবাদের এ কাজটি লন্ডনে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাসের মাধ্যমে করবে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। গতকাল ১ জুলাই সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত অনির্ধারিত আলোচনায় এ বিষয়টি উঠে আসে। কয়েক জন সিনিয়র মন্ত্রীর সঙ্গে আলাপ করে এ বিষয়ে জানা গেছে।

অনলাইন সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে, বৈঠক শুরুর আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মন্ত্রিসভার সদস্যদের উদ্দেশে বলেন, আজকে রেশমা’র উদ্ধার অভিযান নিয়ে একটি সংবাদ দেশের সংবাদপত্রগুলোতে প্রকাশিত হয়েছে। আপনারা কি দেখেছেন তখন মন্ত্রিসভার কয়েক সদস্য প্রধানমন্ত্রীর প্রশ্নের জবাব দেন। এরপর প্রধানমন্ত্রী বলেন, এতদিন পর ডেইলি মেইল ও মিররে সংবাদ প্রকাশের নিশ্চয়ই কোন উদ্দেশ্য রয়েছে। এমন কোন ঘটনা ঘটলে দেশের মিডিয়াগুলো কি চুপ থাকতো তিনি বলেন, আমি তো মনে করি ডেইলি মিরর ও মেইল যা প্রকাশ করেছে তা ডাঁহা মিথ্যা। তাদের এ রিপোর্টের কোন ভিত্তি নেই। দেশকে ছোট করার জন্য নানা চক্র জড়িত রয়েছে, আমি মনে করি ওই চক্রের সঙ্গে বিদেশী কারও যোগসাজশ রয়েছে। এরপর প্রধানমন্ত্রী বৃটেনের প্রভাবশালী দু’টি দৈনিকে প্রকাশিত সংবাদের জোর প্রতিবাদ করার জন্য বলেন। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বৃটেনে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাসের মাধ্যমে এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে।

উল্লেখ্য, ডেইলি মেইল ও মিররের অনুসন্ধানের বরাত দিয়ে দৈনিক মানবজমিন ‘রেশমা উদ্ধার সাজানো’ শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশ করে। এরপর বিভিন্ন অনলাইন পত্রিকাতেও এ খবর প্রকাশিত হয়। এনিয়ে সারা দেশে সাড়া পড়ে যায়। সরকারের ঊর্ধ্বতনদের নজরে পড়ে। ফলে বিষয়টি নিয়ে মন্ত্রিসভায় আলোচনা হয়েছে। গতকাল প্রকাশিত সংবাদে রেশমা উদ্ধার অভিযান পূর্বাপর ও পরবর্তী সব ঘটনা প্রকাশিত হয়। তথ্যসূত্র: দৈনিক মানবজমিন

Advertisements
Loading...