The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

অভিনন্দনের গোঁফে মেতে উঠেছেন তরুণ-বৃদ্ধ সকলেই!

গোঁফের ছবির পাশে কোথাও কোথাও লেখা, ‘সাহসের নতুন এক প্রতীক’

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ ভারতীয়রা তার সাহসকে কুর্নিশ করেছেন। দৃপ্ত ভঙ্গিতে হেঁটে তিনি যখন ভারতের মাটিতে পা রাখলেন, হাঁফ ছেড়ে বাঁচলো কাশ্মীর থেকে কন্যাকুমারী পর্যন্ত। কিন্তু এবার চর্চা শুরু হয়েছে অভিনন্দনের গোঁফ নিয়ে।

অভিনন্দনের গোঁফে মেতে উঠেছেন তরুণ-বৃদ্ধ সকলেই! 1

শুক্রবার রাত ৯’টা একুশে ভারতে ফেরেন অভিনন্দন বর্তমান। শনিবার ভোর হতে না হতেই মোবাইলে নানা ‘শুভ সকাল’ বার্তা- সঙ্গে অভিনন্দনের ট্রেডমার্ক গোঁফের রেখাচিত্র। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে বিভিন্ন কার্টুন।

গোঁফের ছবির পাশে কোথাও কোথাও লেখা, ‘সাহসের নতুন এক প্রতীক’, কোথাও বা ‘গোঁফ দিয়ে যায় চেনা’ এমন কথাও লেখা হয়েছে। কোনও কোনও ছবিতে আবার গোঁফে ভর দিয়ে উড়ে যাচ্ছে ভারতীয় বায়ুসেনার মিগ বিমান!

শুধু ভার্চুয়াল দুনিয়াই নয়, সংবাদ সংস্থা জানিয়েছে, শনিবার সকাল হতেই সেলুনে সেলুনে ভিড় জমে গেছে মানুষের। ছেলেদের একটাই আর্জি- অভিনন্দনের মতো বাহারি গোঁফ করে দিন আমাকে। ভারতীয় বায়ুসেনার উইং কমান্ডারের গোঁফের ধাঁচে নিজেদের সাজাতে উঠেপড়ে লেগেছেন যুবকরা- এমন কি বয়ষ্করাও!

রাস্তার ধারের ‘ইটালীয়’ সেলুন হতে শুরু করে কেতাদুরস্ত বিউটি পার্লার, সব জায়গাতেই ‘অভিনন্দন স্টাইল’-এর জোর কদর শুরু হয়েছে। এক টুইটার গ্রাহকের কথায়, ‘‘অভিনন্দনের গোঁফজোড়া এখন কেতার আর একটি নাম। পার্লারে ঢোকা মাত্রই তাই আপনাকে যদি জিজ্ঞাসা করা হয়, ‘অভিনন্দন কাট চাহিয়ে?’ তা হলে আশ্চর্য হবেন কেনো।’’

অভিনন্দনের গোঁফের যেমন ধরন, তার পোশাকি নামও তেমন ‘গানস্লিংগার’। অনেক দক্ষিণ ভারতীয়ই এই ধরনের গোঁফ রাখেন। সেনাবাহিনীতে বাহারি গোঁফের তো আলাদা কদর রয়েছেই!

Loading...