The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

৫ টুকরা পটেটো চিপসের দাম নাকি ৫ হাজার টাকা!

আপনি হয়তো এমন কথা শুনে অবাক হচ্ছেন! অবিশ্বাস্য হলেও এমনই মহামূল্য পটেটো চিপস তৈরি করেছে সুইডেনের একটি কোম্পানি

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ শুনতে যেনো বিদঘুটে মনে হবে। বিশ্বাস হতে চাইবে না। কিন্তু বাস্তবে ঘটনাটি সত্যি। ৫ টুকরা পটেটো চিপসের দাম নাকি ৫ হাজার টাকা!

৫ টুকরা পটেটো চিপসের দাম নাকি ৫ হাজার টাকা! 1

এমন কথা শুনে যে কারও মনেই সংশয়ের সৃষ্টি হতেই পারে, সেটিই স্বাভাবিক ব্যাপার। কিন্তু আসলেও ঘটনাটি সত্যি। আর সেটি হলো ৫ টুকরা পটেটো চিপসের দাম নাকি ৫ হাজার টাকা!

সিনেমা হলে গিয়ে পপকর্ন ও পটেটো চিপস যদি না-ই খেলেন, তাহলে সিনেমা হলে আসার কী মানে থাকতে পারে বলুন? কারণ হলো সিনেমা তো এখন ঘরে বসেও দেখা যায়। তবে সঙ্গে পটেটো চিপস বিনোদনের স্বাদটাই বদলে দেয় সেটি আমরা সবাই জানি! তাছাড়াও, পটেটো চিপস খাওয়ার কি কোনও নির্দিষ্ট সময় রয়েছে? যখন মন চাইবে, কাছে-পিঠের কোনও দোকান হতে কিনে খেয়ে নিলেই হলো! তবে প্রশ্ন আসতে পারে যে, ৫ টুকরা পটেটো চিপসের দাম যদি ৫ হাজার টাকারও বেশি হয়, তাহলে সেটি কীভাবে খাবেন?

আপনি হয়তো এমন কথা শুনে অবাক হচ্ছেন! অবিশ্বাস্য হলেও এমনই মহামূল্য পটেটো চিপস তৈরি করেছে সুইডেনের একটি কোম্পানি। হাতে তৈরি করা এই চিপস একটি সুসজ্জিত বাক্সে ভরে বিক্রি করা হয়ে থাকে। একটি বাক্সে থাকে মাত্র ৫টি করে চিপস! এর দাম ৫৯ মার্কিন ডলার (বর্তমানে এর দাম ৬২ মার্কিন ডলার)। বছর তিনেক আগেও যখন এই পটেটো চিপস লঞ্চ হয়, তখন এক সপ্তাহের মধ্যেই এর ১০০টি বাক্স বিক্রিও হয়ে গিয়েছিলো।

কেনো এতো দাম এই পটেটো চিপসের? কারণ কী?

কারণ হলো এই মহার্ঘ্য চিপস তৈরির উপাদানগুলো বছরের একটি নির্দিষ্ট সময়ই পাওয়া যায়। যে কারণে চিপস তৈরির জন্য প্রয়োজনীয় উপাদানগুলোর যোগান কম থাকায় এই চিপসের দাম এতো বেশি!

কী কী উপাদানে তৈরি হয় এই মহামূল্যবান পটেটো চিপস?

এই চিপস তৈরির জন্য বিশেষ ধরনের ৫টি উপাদান প্রয়োজন হয়। এর প্রধান উপকরণ হলো আলু। এটি আসে উত্তর সুইডেনের আমারনাস-এর পার্বত্য অঞ্চল হতে। এটি অত্যন্ত দুর্গম এলাকা। এই এলাকায় খুব সীমিত পরিমাণে আলুর চাষ করা হয়ে থাকে। শুধু তাই নয়, বছরে মাত্র একবার ‘ব্লু হার্ভেস্ট মুন’-এর সময় মাঠ হতে এই আলু তোলা হয়।

এই চিপস তৈরির আরও একটি প্রয়োজনীয় উপাদান হলো মাটসুটেক মাশরুম। জানা গেছে যে, বিশেষ ধরনের গ্লাভস না পরে এই মাশরুম নাকি তোলাও যায় না! উত্তর সুইডেনের জঙ্গল হতে এই মাটসুটেক মাশরুম সংগ্রহ করে আনা হয় অত্যন্ত কষ্টসাধ্য করে।

এই চিপস তৈরির আরও একটি প্রয়োজনীয় উপাদান হলো ক্রাউন ডিল গাছ। এটি আনা হয় অস্ট্রেলিয়ার বারে দ্বীপপুঞ্জ হতে।

জি নিউজ-এর এক খবরে বলা হয়েছে, এই চিপসের আর ওএকটি উপাদান হলো ট্রাফল সিউইড। এটি হলো এক ধরনের ছত্রাক। এটি আনা হয় নাফারাও দ্বীপ হতে। তাছাড়াও এই চিপস তৈরির জন্য প্রয়োজনীয় লেকস্যান্ড পেঁয়াজ ও পেল অ্যালে ওর্ট সুইডেনে কম পরিমাণেই পাওয়া যায়। যে কারণে সব মিলিয়ে এই চিপসের দাম এতো বেশ হওয়াটাই স্বাভাবিক! এবং ঠিক তাই এই চিপসের দাম এতো বেশি। যা শুনলে সকলের কাছেই আজগুবি বলেই মনে হয়।

Loading...