The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

ফেসবুকের সহ-প্রতিষ্ঠাতা এখনই ফেসবুক বন্ধ করতে চান!

২০০৪ সালে হারভার্ডে সংস্থার চিফ একজিকিউটিভ অফিসার মার্ক জুকেরবার্গ এবং ডাস্টিন মস্কোভিৎজের সঙ্গে ফেসবুকের জন্ম দেন ক্রিস হিউজেস

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ বর্তমান এই প্রযুক্তিনির্ভর যুগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোর মধ্যে ফেসবুক হলো অন্যতম একটি মাধ্যম। বর্তমানে ফেসবুকের গ্রাহক সংখ্যা ২০০ কোটিরও বেশি। তবে চমকপ্রদ খবর হলো ফেসবুকের সহ-প্রতিষ্ঠাতা এখনই ফেসবুক বন্ধ করতে চান!

ফেসবুকের সহ-প্রতিষ্ঠাতা এখনই ফেসবুক বন্ধ করতে চান! 1

সংস্থাটির মালিকানাধীন হোয়াটসঅ্যাপ, মেসেঞ্জার এবং ইনস্টাগ্রামের প্রতিটিতে ১০০ কোটির বেশি ইউজার রয়েছেন। তবে সম্প্রতি নিউ ইয়র্ক টাইমস পত্রিকায় প্রকাশিত এক নিবন্ধে চমকে দেওয়ার মতো এক মন্তব্য করেছেন মার্ক জুকেরবার্গের প্রাক্তন রুমমেট তথা ফেসবুক ইনকর্পোরেটিভ সংস্থার সহ-প্রতিষ্ঠাতা ক্রিস হিউজেস। তার ধারণা মতে, এখনই বন্ধ করে দেওয়া উচিত ফেসবুক।

ক্রিস হিইজেসের মতে, ‘আমরা এমনই এক দেশ যেখানে একচ্ছত্র আধিপত্যের লাগাম দেওয়া হয়েছে, তা সে যতোই সৎ উদ্দেশ্য থাক কোনো সংস্থার মালিকের। মার্কের ক্ষমতা প্রশ্নাতীত ও অ-আমেরিকান সুলভ।’

উল্লেখ্য, ২০০৪ সালে হারভার্ডে সংস্থার চিফ একজিকিউটিভ অফিসার মার্ক জুকেরবার্গ এবং ডাস্টিন মস্কোভিৎজের সঙ্গে ফেসবুকের জন্ম দেন ক্রিস হিউজেস। ২০০৭ সালে তিনি সংস্থা ত্যাগ করেন ও পরে লিংকেডিন সাইটে এক পোস্টের মাধ্যমে জানান যে, তিন বছর ফেসবুকের সঙ্গে কাজ করার কারণে তিনি ৫০ কোটি ডলার উপার্জন করেছেন।

ক্রিস হিউজেস জানিয়েছেন, ‘১৫ বছর হয়ে গেলো হারভার্ডে আমি ফেসবুক সহ-প্রতিষ্ঠা করি। এটাও সত্যি যে গত এক দশকে আমি ওই সংস্থার জন্য কোনো কাজই করিনি। তবুও আমি ক্ষোভ ও দায়িত্ববোধে ভুগছি।’

তাঁর ভাষায়, ‘মার্ক অত্যন্ত ভালো এবং দয়ালু একজন মানুষ। তবে উন্নয়নের দিকে নজর থাকায় ক্লিক বাড়াতে গিয়ে নিরাপত্তা ও শিষ্টতা সে ভুলেই গেছে। ওর আশপাশে এমন কিছু মানুষ এবং কর্মী সব সময় ঘিরে থাকে, যারা ওর এই বিশ্বাসকে চ্যালেঞ্জ না করে তাতে আরও ইন্ধন জোগায়।’

তবে ক্রিস হিউজেসের এমন একটি মন্তব্য সম্পর্কে ফেসবুকের পক্ষ হতে এখন পর্যন্ত কোনো রকম প্রতিক্রিয়া জানানো হয়নি।

Loading...