The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

গবেষণা: মানুষ নাকি দিনে ৫২ মিনিট পরনিন্দা করে!

কম বয়সিরা নেতিবাচক গল্প করতে পছন্দ করেন

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ যাদের কথা বলা নিত্য সময়ের অভ্যাস, গল্প না করতে পারলে তারা যেনো মুষড়ে পড়েন। গল্প করতে না পারলে শান্তি থাকে না তাদের মনে। এক গবেষণায় বলা হয়েছে মানুষ নাকি দিনে ৫২ মিনিট পরনিন্দা করে!

গবেষণা: মানুষ নাকি দিনে ৫২ মিনিট পরনিন্দা করে! 1

যাদের কথা বলা নিত্য সময়ের অভ্যাস, গল্প না করতে পারলে তারা যেনো মুষড়ে পড়েন। গল্প করতে না পারলে শান্তি থাকে না তাদের মনে। এক গবেষণায় বলা হয়েছে মানুষ নাকি দিনে ৫২ মিনিট পরনিন্দা করে!

প্রকৃত পক্ষে গল্প করেই সবচেয়ে ভালো সময় কাটানো যায়। স্কুল, কলেজ, অফিসসহ সব জায়গাতেই টাইম পাস করার জন্য আমরা প্রত্যেকেই কম বেশি গল্প কিংবা আড্ডা দিয়ে থাকি।

গল্প করতে না পারলে অনেকের সারাদিনের খাবাও হজম হয় না। এমন মানুষের সংখ্যাও নেহায়েত খুব একটা কম নয়। তবে এই গল্প নিয়ে সম্প্রতি একটি চাঞ্চল্যকর তথ্য উঠে এসেছে। ক্যালিফোর্নিয়ার একটি বিশ্ববিদ্যালয় এই বিষয়টি নিয়ে একটি গবেষেণা চালিয়েছে।

ক্যালিফোর্নিয়া রিভারসাইড বিশ্ববিদ্যালয়ের ওই গবেষণায় ওঠে এসেছে যে, একজন মানুষ প্রতিদিন মোট ৫২ মিনিট গল্প করেন বা পরনিন্দা করেন।

প্রথমে গবেষণায় কিছু মানুষকে প্রশ্ন করা হয়, মানুষ আসলে কোন সময় বেশি গল্প করে? গল্পে বা আড্ডায় কী কী বিষয়ে গল্প করতে মানুষ বেশি পছন্দ করেন?

পরে এগুলি নিয়ে গবেষণা করতে গিয়ে ৫২ মিনিটের তথ্য সামনে আসে গবেষকদের কাছে। সেইসঙ্গে বলা হয়, আবার কম বয়সিরা নেতিবাচক গল্প করতে পছন্দ করেন।

ক্যালিফোর্নিয়া রিভারসাইড বিশ্ববিদ্যালয়ের করা ওই গবেষণায় অংশগ্রহণ করেন প্রায় ৪৬৭ জন। তাদের মধ্যে ২৬৯ জন মহিলা ও বাকিরা পুরুষ। ১৮ হতে ৫৮ বছর বয়সি মানুষ ছিলেন এই গবেষণাতে। তাদের কথোপকথন রেকর্ড করার জন্য প্রত্যেকের শরীরে লাগানো হয় পোর্টেবল লিসনিং ডিভাইস।

সারাদিনের কথা বলার মধ্যে থেকে ১০ শতাংশ রেকর্ড করেছে ওই ডিভাইসটিতে। সেখান থেকেই গবেষকরা গল্পের ধরন ও সময়ের পরিমাণ জানতে পারেন। এক্ষেত্রে কোনো অনুপস্থিত থাকা ব্যক্তিকে নিয়ে চর্চাকেই গল্প বলে বিবেচনা করা হয়। একই সঙ্গে দেখা গেছে মহিলারা পুরুষদের তুলনায় পরনিন্দা পরচর্চায় খুব বেশি আগ্রহী হয়ে থাকেন। তারা পরনিন্দা বা পরচর্চায় বেশি সময় পার করেন বলে গবেষণায় উঠে এসেছে।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...