The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

ঈদে আসছে রাশেদের স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘পাথরের চোখ নিয়ে বাঁচি’

বাংলার কোনো এক সবুজ শ্যামল গ্রামীণ পটভূমিতে বহু বছর পূর্বে ঘটে যাওয়া একটি সত্য ঘটনা অবলম্বনে রচিত হয়েছে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ এবারের ঈদুল ফিতর উপলক্ষ্যে মুক্তি পেতে যাচ্ছে অভিনেতা রাশেদের স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘পাথরের চোখ নিয়ে বাঁচি’।

ঈদে আসছে রাশেদের স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘পাথরের চোখ নিয়ে বাঁচি’ 1

বাংলার কোনো এক সবুজ শ্যামল গ্রামীণ পটভূমিতে বহু বছর পূর্বে ঘটে যাওয়া একটি সত্য ঘটনা অবলম্বনে রচিত হয়েছে রোমান্টিক এই ‘পাথরের চোখ নিয়ে বাঁচি’ গল্পটি। গল্পের মূল চরিত্র রয়েছেন হাদি ও সারথি।

এই স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রে রয়েছে মুসলিম ছেলে ও হিন্দু মেয়ের গল্প। রোমান্টিক গল্পটি শেষে গিয়ে মোড় নেয় শুধু এক কান্নায়। মুসলিম ছেলে, নির্বাক হাদি এখনও সারথির চিতা জ্বালানোর জায়গায় যেনো অপেক্ষার প্রহর গুণে। সারথির জন্য সে পাথরের চোখ নিয়ে বেঁচে রয়েছে।

সোহেল আরিয়ানের পরিচালনায় স্বল্পদৈর্ঘ্য এই চলচ্চিত্রটিতে অভিনয় করেছেন সুস্মিতা সিনহা, রাশেদ আল মামুন, কাজী উজ্জল, তমাল মাহবুব, সৃজন সোহাগ, আফসা পারভীন। সহকারি পরিচালক প্রান্ত এবং পিঞ্জু। ফিল্মটির আর্ট ডিরেক্টর ছিলেন নাজির আহাম্মেদ। আর প্রযোজনায় চিত্রকল্প।

পঞ্চগড় সদর উপজেলার খানপুকুর খোলা পাড়ার ছেলে হলো রাশেদ। ২০০৮ সাল হতে থিয়েটার করেন পঞ্চগড় নাট্য সমিতিতে। এখান থেকেই শুরু হয় তার অভিনয়ের যাত্রা। ২০০৯ সালে শিল্পকলা একাডেমী আয়োজিত নাট্য উৎসবে শ্রেষ্ঠ অভিনেতা হিসেবে পুরস্কারও পেয়েছিলেন তিনি। ২০১৩ হতে ঢাকায় থিয়েটার করেন। ৮০ এর অধিক মঞ্চ নাটকে অভিনয় করেছেন রাশেদ। নিয়মিত খণ্ড টিভি নাটকও করছেন। কয়েকটি ধারাবাহিক নাটকেও অভিনয় করেছেন রাশেদ।

এই স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘পাথরের চোখ নিয়ে বাঁচি’-তে হাদি চরিত্রে থাকবেন রাশেদ আল মামুন। এই চলচ্চিত্রটির জন্য সবার কাছে তিনি দোয়াও চেয়েছেন। অভিনয়ের মধ্যদিয়ে তিনি সমাজকে বদলে দিতে চান। সেইসঙ্গে আশা করছেন, তার নতুন স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রটি দর্শকদেরও খুব ভালো লাগবে।’

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...