The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

জেনে নিন নিরাপদে গাড়ি চালানোর কিছু টিপস

যানবাহন আমাদের জীবনকে করেছে গতিময় আর আমাদের যোগাযোগ ব্যবস্থাকে করেছে আরামদায়ক ও সহজলভ্য

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ আমাদের এই গতিময় জীবনের একটি অবিচ্ছেদ্দ অংশের নাম গাড়ি বা যানবাহন। এই যানবাহনের গুরুত্ব আমাদের জীবন ব্যবস্থায় অপরিসীম। আজ জেনে নিন নিরাপদে গাড়ি চালানোর কিছু টিপস।

জেনে নিন নিরাপদে গাড়ি চালানোর কিছু টিপস 1

যানবাহন আমাদের জীবনকে করেছে গতিময় আর আমাদের যোগাযোগ ব্যবস্থাকে করেছে আরামদায়ক ও সহজলভ্য। সম্প্রতি আমাদের দেশে সড়ক দুর্ঘটনা ক্রমশই বেড়ে চলেছে। এই দুর্ঘটনায় হাজারো মা হারিয়েছে তার সন্তান, আর হাজারো পরিবার হারিয়েছে তাদের আপনজনকে। আমাদের একটু সচেতনতাই পারে এই বিপদ থেকে রক্ষা করতে। আমাদের দৈনন্দিন জিবনে আমরা অনেকে গাড়ি চালাই অথবা চালকের উপর নির্ভর হয়ে থাকি। যদি সঠিক নিয়মে ও সঠিক আইন অবলম্বন করে আমরা গাড়ি চালাই তাহলে খুব সহজেই আমরা বাচাতে পারি প্রিয়জনের মহামূল্যবান প্রান। তাহলে আসুন জেনে নেই নিরাপদে গাড়ি চালানোর কিছু মূল্যবান টিপস।

সিট বেল্ট ব্যবহার

গাড়িতে উঠেই আমাদের সর্ব প্রথমেই গাড়ির নির্ধারিত সিট বেল্ট বাধতে হবে। সিট বেল্ট গাড়ির একটি অপরিহার্য অংশ। এই বেল্ট বাঁধা থাকলে যে কোনো দুর্ঘটনায় বড় ধরনের আঘাত থেকে খুব সহজেই নিজেকে রক্ষা করা যেতে পারে।

মনোযোগ ও দক্ষতার সাথে গাড়ি চালনা

গাড়ি চালানোর সময় কথাবলা, মোবাইলফোন ব্যবহার করা, ধূমপান করা, উত্তেজিত হওয়া, ইত্যাদি কাজ থেকে নিজেকে বিরত রাখতে হবে। কারণ এগুলো সড়ক থেকে আপনার পূর্ণ মনোযোগ সরিয়ে নেয়। গাড়ি চালানোর সময় ঘুম ঘুম ভাব নিয়ে কখনোই গাড়ি চালানো যাবে না। এক্ষেত্রে রাতে একটা ভালো ঘুম খুব দরকারি। ঘুম ভাব রাতে যানবাহন চালানোর সময় বিপদের একটি বিশেষ কারন হয়ে দাড়াতে পারে।

জেনে নিন নিরাপদে গাড়ি চালানোর কিছু টিপস 2

সঠিক গতিতে গাড়ি চালানো

গাড়ি চালানোর সময় আমাদের অবশ্যই গতিসীমার দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে। মনে রাখবেন যতো বেশি গতি ততো বেশি দুর্ঘটনা সংগঠিত হওয়ার সুযোগ থাকে। দ্রুত গাড়ি চালালে সেটা দুর্ঘটনার সম্ভাবনা অনেক বাড়িয়ে দেবে যার ফলে আপনি অচিরেই হারাতে পারেন আপনার ও আপনার আপনজনের মহামূল্যবান জীবন। তাই কোথাও আগে যেতে চাইলে গাড়ির গতি না বাড়িয়ে বরং আগে বেরিয়ে পড়ুন। গাড়ির গতিসিমার জন্য অবশ্যই আপনাকে সচেতন থাকতে হবে এবং রাস্তাভেদে গতির পরিমাণের ক্ষেত্রে অবগত থাকতে হবে।

গাড়ির অবস্থা পরীক্ষা করা

গাড়ি সড়কে নামানোর আগে অবশ্যই গাড়ীর বিভিন্ন পার্টস ঠিক আছে কিনা পরীক্ষা করে নিতে হবে। যেমনঃ গাড়ির হ্যান্ড ব্রেক ঠিক মতো কাজ করছে কিনা, রেডিয়েটরে পর্যাপ্ত পরিমাণে পানি আছে কিনা, হর্ন ঠিকমত বাজে কিনা, গাড়ির সকল লাইট ঠিকমত জলছে কিনা, গাড়ির ইনডিকেটর লাইট ও আয়না ঠিক আছে কিনা,গাড়ীর চাকায় হাওয়া আছে কিনা ইত্যাদি পরীক্ষা করে নিতে হবে। এছাড়াও এক্সিলেটর প্যাডেল, ব্রেক প্যাডেল, স্টিয়ারিং হুইল, ওয়াইপার সুইচ ঠিক আছে কিনা তা চেক করে দেখতে হবে। এই সকল পরিক্ষার পর গারিকে রাস্তায় নামানো শ্রেয়।

অন্য চালকদের প্রতি সতর্ক থাকা

আমাদের দেশে নানান ধরনের চালক রয়েছে, মনে রাখবেন অন্য চালকেরা আপনার মতো নিয়ম মেনে গাড়ি নাও চালাতে পারে। তাই আপনাকে সবসময়ে চারপাশের চালক ও অবস্থা সম্পর্কে সতর্ক থাকতে হবে। আপনাকে ট্রাফিক সিগন্যাল, গাড়ির সঠিক লেন ইত্যাদি মেনে গাড়ি চালাতে হবে। মনে রাখুন একটু সতর্ক থাকলেই যে কোন বড় দুর্ঘটনা এড়িয়ে যেতে পারবেন।

সকল প্রকার মাদক বর্জন

মনে রাখবেন মাদক গ্রহণ করে গাড়ি চালানো একটি দণ্ডনীয় অপরাধ। মাদক আপনার বিবেচনা করার ক্ষমতাকে নষ্ট করে দেয়। মাদক দ্রব্য আমাদের দৃষ্টি শক্তি কমিয়ে দেয়, অস্পষ্ট করে দেয় আমাদের দৃষ্টিকে তাই মাদক সেবন করে কখনোই গাড়ি চালানো যাবে না।

ট্রাফিক আইন মেনে চলা

আমাদের সকলেরই উচিত সঠিক নিয়মে দেশের প্রচলিত ট্রাফিক আইন জানা এবং তা মেনে গাড়ি চালনা করা। সঠিক আইন মেনে গাড়ি চালালে আমরা অনেক দুর্ঘটনা থেকে সহজেই মুক্তি পাবো। আমাদের অবশ্যই ট্রাফিক আইন মানা, নির্ধারিত গতিসিমায় গাড়ি চালনা, ট্রাফিক পুলিশের নির্দেশ অনুকরণ করে গাড়ি চালাতে হবে।

আমরা অবশ্যই গাড়ি চালানোর ব্যাপারে সচেতন থাকবো, কারণ আমরাই পারি একটু সচেতনতার মাধ্যমে নিজেদের রক্ষা করতে । মনে রাখবেন- একটি দুর্ঘটনা সারা জীবনের কান্না।

Loading...