The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

‘নিজের মৃত্যুর’ জন্য আধাবেলা ছুটির আবেদন স্কুলছাত্রের!

মাঝে মধ্যেই আমাদের কিছু ঘটনা দাগ কাটে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ মাঝে মধ্যেই আমাদের কিছু ঘটনা দাগ কাটে। যেমন এবার এমন একটি সংবাদ সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে। এবার এক স্কুলছাত্র আধাবেলা ছুটির আবেদন করলো ‘নিজের মৃত্যুর’ জন্য!

‘নিজের মৃত্যুর’ জন্য আধাবেলা ছুটির আবেদন স্কুলছাত্রের! 1

মাঝে মধ্যেই আমাদের কিছু ঘটনা দাগ কাটে। যেমন এবার এমন একটি সংবাদ সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে। এবার এক স্কুলছাত্র আধাবেলা ছুটির আবেদন করলো ‘নিজের মৃত্যুর’ জন্য!

অদ্ভুত ওই ছুটির দরখাস্তটি ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। নিজের মৃত্যুর কারণ দেখিয়ে টিফিন পিরিয়ডের পর ছুটি চেয়ে প্রধান শিক্ষকের কাছে দরখাস্ত লিখল করে এক শিক্ষার্থী।

ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের কানপুরে। এমন অদ্ভুত দরখাস্তটি লিখেছেন সেখানকার স্থানীয় একটি বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণীর একজন ছাত্র।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমস এক খবরে বলেছে, গত আগস্ট মাসে কানপুরের জিটি রোডের একটি বেসরকারি বিদ্যালয়ে এই ব্যতিক্রম ছুটির দরখাস্ত প্রধান শিক্ষকের কাছে জমা দেন অষ্টম শ্রেণীর এক ছাত্র। ছুটির কারণ হিসেবে সে নিজের মৃত্যুর কথা উল্লেখ করেছে। দরখাস্তটি পুরোপুরি না পড়েই তাতে ছুটির অনুমোদনের সই করে দেন প্রধান শিক্ষক।

দরখাস্তে ওই ছাত্র লিখেছিলো যে, ‘আজ সকাল ১০টায় আমার মৃত্যু ঘটেছে। তাই অন্ত্যোষ্টিক্রিয়ায় থাকার জন্য আমাকে অর্ধেক দিন ছুটি দেওয়া হোক।’

দরখাস্তটি সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে রসিকতায় মেতেছেন নেটিজেনরা। অনেকেই ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন, কী করে একজন ছাত্র এমন দরখাস্ত লিখতে পারে! আবার তা মঞ্জুরও হয়!

এই সম্পর্কে হিন্দুস্তান টাইমস জানিয়েছে, ওই শিক্ষার্থী মূলত দরখাস্তে তার দাদি মারা গেছেন বলে আবেদন করতে চেয়েছিলেন। তবে ভুল করে ‘আমার দাদিমার মৃত্যুর’ বদলে ‘আমার‌ মৃত্যুর জন্য’ লিখে ফেলেন সে‌।

এ সম্পর্কে বিদ্যালয়টির এক শিক্ষক সংবাদমাধ্যমটিকে জানিয়েছেন, বেশিরভাগ সময়েই প্রধান শিক্ষক ছুটির আবেদন ভালো করে পড়ে দেখেনই না। শিক্ষার্থীর কাছেই কারণ জিজ্ঞেস করে তাতে সই দেন তিনি। সেজন্যই এমন কাণ্ড ঘটেছে।

Loading...