The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

আরটিভির ধারাবাহিক তোলপাড়

ব্যস্ত এই শহরে নানা রকম মানুষ থাকে। তাদের একজন হলেন জয়নাল

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ আরটিভিতে নিয়মিতভাবে প্রচারিত হচ্ছে ধারাবাহিক নাটক তোলপাড়। ইতিমধ্যেই এই নাটকটি দর্শকদের মধ্যে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে।

আরটিভির ধারাবাহিক তোলপাড় 1

ব্যস্ত এই শহরে নানা রকম মানুষ থাকে। তাদের একজন হলেন জয়নাল। শশুরবাড়ির সম্পত্তি ভোগ করে বেশ আরাম আয়েসেই দিন কাটে তার। সারাদিন ঘরে বসে ইউটিউবে আজগুবি সব জিনিস দেখে। জয়নালের স্ত্রী রোকসানা সংসার চালাতে শেষ পর্যন্ত একটি লেডিস হোষ্টেল চালু করে। একে একে বিভিন্ন ধরণের মেয়েরা আসতে থাকে তার হোষ্টেলে।

বিভিন্ন শহরের মেয়েরা বিভিন্ন ভাষা ও বিচিত্র সব আচরণে কোলাহল মুখর করে রাখে রোকসানার হোষ্টেল। এই মেয়েদের মধ্যে কেও টিউশনি করে, কেও ইন্সুরেন্সে চাকরী করে, কেও আবার কর্পোরেট অফিসে যব করে, কেওবা অনলাইন মার্কেটিং-এর সঙ্গেও যুক্ত।

আবার এদের মধ্যেই কেও ছিনতাইকারী চক্রের সঙ্গে জড়িত, কেও আবার জীবন চালাতে বেছে নেয় প্রতারণার পথ, কেওবা নায়িকা হওয়ার স্বপ্নে বিভোর। একসঙ্গে থাকতে গিয়ে তাদের মধ্যে ভাব হয়, প্রচণ্ড ঝগড়াও হয় এদের মধ্যে।

এই বাড়ির প্রতি কৌতুহলী হয়ে ওঠে এলাকার যুবকরা। তাই কারণে অকারণে আড্ডা জমায় হোষ্টেলের আশে পাশে এবং সুযোগ পেলেই কোনো না কোনো মেয়ের সঙ্গে মিশে সম্পর্ক করতেও চেষ্টা করে। এরা ছাড়াও এলাকার ডিসওয়ালা, ইন্টারনেট সার্ভিস, লন্ড্রিওয়ালা, পাতি মাস্তান এরা নিয়মিত এই বাড়িতে যোগাযোগ করতে শুরু করে দেয়। হোষ্টেলের মেয়েগুলোও বিভিন্নভাবে এদের কাছ থেকে সুযোগসুবিধা আদায় করতে থাকে। সুন্দরী মেয়েদের মন জয় করতে নানা রকম ফন্দি আটে কেও কেও। ছোট খাট বিষয় নিয়েই তোলপাড় করে ফেলে পুরো এলাকা। এমনই এক গল্প নিয়ে জমে উঠেছে আরটিভির ধারাবাহিক নাটক ‘তোলপাড়’।

নাট্যকার জাকির হোসেন উজ্জ্বলের রচনা এবং মুসাফির রনির পরিচালনায় ‘তোলপাড়’ নাটকটি নিয়মিত প্রচারিত হচ্ছে আরটিভিতে প্রতি শুক্র হতে সোমবার রাত ১০টায়।

‘তোলপাড়’ নাটকের বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করছেন, ডা. এজাজ, শামীমা নাজনীন, ফারুক আহমেদ, সাজু খাদেম, শারমীন জোহা শশী, রাশেদ মামুন অপু, অপর্ণা ঘোষ, নিলয় আলমগীর, মৌসুমী হামিদ, ফারজানা ছবিসহ প্রমুখ।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...