The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

আপনি কী কখনও দেখেছেন হলুদ রঙের ব্যাঙ? [ভিডিও]

বর্তমানে বর্ষায় চতুর্দিকে পানি থৈ থৈ অবস্থা। চাষের জমিও বর্ষার পানিতে ডুবে দেখে চতুরদিকে। ওই পানিতে লাফালাফি করে বেড়াচ্ছে অনেকগুলো উজ্জ্বল ব্যাঙ

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ আমরা জানি বর্ষাকালে ব্যাঙ দেখা যায়। যখন চারিদিকে পানি থৈ থৈ থাকে তখন ব্যাঙেদের আনা-গোনা বাড়ে। কিন্তু আপনি কী কখনও দেখেছেন হলুদ রঙের ব্যাঙ? আজ দেখুন!

আপনি কী কখনও দেখেছেন হলুদ রঙের ব্যাঙ? [ভিডিও] 1

বর্তমানে বর্ষায় চতুর্দিকে পানি থৈ থৈ অবস্থা। চাষের জমিও বর্ষার পানিতে ডুবে দেখে চতুরদিকে। ওই পানিতে লাফালাফি করে বেড়াচ্ছে অনেকগুলো উজ্জ্বল ব্যাঙ। তবে এগুলো সাধারণ ব্যাঙ নয়, এগুলো হলুদ রঙের ব্যাঙ! দেখতে ব্যাঙগুলোকে সত্যিই অপূর্ব লাগছে। হলুদের আভা ছড়িয়ে এদিক-সেদিক ছুটে বেড়াচ্ছে ওই ব্যাঙগুলো। কোনোটি আবার পানির ভেতর ডুবও দিচ্ছে, আবার কেওবা ভেসে উঠছে যেনো আনন্দে আত্মহারা।

এমন দৃশ্যটি ধারণ করা হয়েছে ভারতের মধ্যপ্রদেশে নরসিংহপুর এলাকা হতে। ১৩ জুলাই ভিডিওটি পোস্ট করেন পরভীন কাসওয়ান নামে জনৈক ব্যক্তি। তারপর ভিডিওটি ছেড়ে দেওয়া হয় সোশ্যাল মিডিয়াতে। এ পর্যন্ত ১ লাখ ৯৯ হাজারেরও বেশি মানুষ দেখেছেন এই ভিডিওটি এবং শেয়ারও করেছেন বহু মানুষ।

ভিডিওটি টুইটারে পোস্ট করে ভারতীয় বন বিভাগের কর্মকর্তা পরভীন কাসওয়ান এই বিষয়ে জানিয়েছেন, চাষের জমির পানিতে লাফিয়ে বেড়ানো উজ্জ্বল হলুদ রঙের ব্যাঙ এই দেশেই পাওয়া যায়। এগুলোকে বুলফ্রগ বলা হয়ে থাকে। এগুলো মূলত এক ধরনের ভারতীয় সোনাব্যাঙ। বছরের অন্য সময় এদের শরীরের রং অন্যরকম থাকলেও বর্ষায় সঙ্গিনীকে আকর্ষিত করতেই এরা নিজের শরীরের রং বদলিয়ে এমন হলুদ বরণ ধারণ করেন। আর তাই এদের দেখতে সত্যিই চমৎকার লাগে। ভিডিওটি দেখলে বিষয়টি আপনার কাছেও পরিষ্কার হবে।

দেখুন ভিডিওটি

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...