The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

বীমার টাকা পেতে নিজেই নিজের হাত কাটলেন এক তরুণী! [ভিডিও]

মানুষের অর্থ উপার্জনের নানা উপায় থাকে। সৎ পথে অর্থ উপার্জন করলে কোনো কথা নেই, তবে অসৎ পথে অর্থ উপার্জন করতে গেলে ধরা পড়ার সম্ভাবনাও থাকে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ অর্থের জন্য মানুষ এমন নীচে নামতে পারেন তা কখনও চিন্তাও করা যায় না। এমন একটি ঘটনা সকলকে বিস্মিত করেছে। বীমার টাকা পেতে নিজেই নিজের হাত কাটলেন এক তরুণী!

বীমার টাকা পেতে নিজেই নিজের হাত কাটলেন এক তরুণী! [ভিডিও] 1

মানুষের অর্থ উপার্জনের নানা উপায় থাকে। সৎ পথে অর্থ উপার্জন করলে কোনো কথা নেই, তবে অসৎ পথে অর্থ উপার্জন করতে গেলে ধরা পড়ার সম্ভাবনাও থাকে। ঠিক এমনই একটি ঘটনা ঘটেছে স্লোভেনিয়ার এক ২২ বছর বয়সী তরুণীর। বীমার টাকা পেতে নিজেই নিজের হাত কেটে ফেললেন জুলিজা আদেলেসিক নামে ওই তরুণী। তাও শেষ রক্ষা হয়নি, ধরা পড়ে গেলেন তিনি। তারপরই সেখানকার স্থানীয় একটি আদালত তাকে দু’বছরের হাজতবাসের সাজা দিয়েছে। শুধু তাকেই নয়, তার বন্ধুকে গোটা এই ঘটনার পরিকল্পনা করে দেওয়ার জন্য তিন বছরের সাজা দেওয়া হয়েছে।

জানা যায় যে, ওই তরুণী নিজের হাতের বিমা করান। তাতে বলা হয়েছে, বিমার শর্ত ছিলো কোনও কারণে হাত বিচ্ছিন্ন হয়ে গেলে ক্ষতিপূরণ বাবদ এককালীন মোটা টাকার পাশাপাশি প্রতি মাসেও অর্থ পাবেন। যা ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় সাড়ে ৩ কোটি টাকার সমান! তারপর নিজের এক সঙ্গী এবং আরও দুই বন্ধুকে নিয়ে গোটা পরিকল্পনাটি বাস্তবায়িত করেন ওই তরুণী। একটি ধারাল অস্ত্রের সাহায্যে নিজেই নিজের হাত কেটে ফেলেন। তারপর হাসপাতালে যান সেই হাতটি ছাড়া। যাতে করে তার হাত পুরোপুরিভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয় এবং তিনি তিনগুণ টাকা ক্ষতিপূরণ পান। এদিকে এই খবর দেওয়া হয় বীমা কোম্পানিকেও। তবে কোনওভাবে কাটা হাতটি উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসেন জনৈক কর্মকর্তা।

তারপরই জনসমক্ষে বেরিয়ে আসে প্রকৃত ঘটনা। এই ঘটনায় অনেকেই অবাক হন। অনেকেই প্রশ্ন তোলেন যে, টাকার জন্য নিজের হাত কীভাবে কেটে বাদ দিতে পারলো একজন মানুষ!

এই ঘটনা জানাজানির পর উল্টো মামলা দায়ের হয় ওই তরুণীর বিরুদ্ধে। তদন্তও শুরু হয়ে যায়। দেখা যায় যে, ঘটনার কিছুক্ষণ আগেই ৫টি পৃথক কোম্পানিতে নিজের হাতের বীমা করিয়েছিলেন ওই তরুণী। এরপরই তাকে ২ বছরের ও তার বন্ধুকে ৩ বছরের জন্য সাজা দেয় আদালত।

দেখুন ভিডিওটি

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...