The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

চঞ্চল চৌধুরীর চমক লাগানো পোস্টার!

বিষয়টি নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন আরেক নির্মাতা তানিম নূর

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ ছোট বা বড় সব খানেই জনপ্রিয় চঞ্চল চৌধুরী। বিভিন্ন ধরনের চরিত্রে নিজেকে প্রমাণও করেছেন তিনি। এবার তাকে দেখা গেছে এক ব্যতিক্রমি চেহারায়।

চঞ্চল চৌধুরীর চমক লাগানো পোস্টার! 1

ভারতীয় স্ট্রিমিং সাইট হৈচৈ ২৫টি নতুন শো-এর ঘোষণা দিয়েছে। এর মধ্যে অন্যতম একটি হলো ‘তাকদীর’। এ ওয়েব সিরিজে অভিনয় করছেন চঞ্চল চৌধুরী। ঘোষণার দিনেই তাকে পাওয়া গেছে পোস্টারে। সেখানে নতুনভাবে হাজির হয়েছেন এই জনপ্রিয় তারকা।

এই সিরিজে একটা ট্রাঙ্ক থেকে মৃতদেহ উদ্ধারের পর খুনের ঘটনাতে ফেঁসে যাওয়া এক ব্যক্তির চরিত্রে অভিনয় করবেন চঞ্চল চৌধুরী। এটি পরিচালনা করছেন সালেহ সোবহান অনীম এবং সৈয়দ আহমেদ শাওকি।

বিষয়টি নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন আরেক নির্মাতা তানিম নূর। জানালেন চঞ্চল সম্পর্কে নিজের মতামতও।

তিনি লেখেন যে, ‘তাকদীর, অনীম-শাওকির যৌথ প্রচেষ্টায় বাংলা ওয়েব সিরিজে নিঃসন্দেহে একটি মাইলফলক হতে চলেছে। শাওকি এই সিরিজের পরিচালক ও নাম ভূমিকায় আমাদের ওয়ান অ্যান্ড ওনলি চঞ্চল ভাই। চঞ্চল ভাইয়ের ডেডিকেশনের একটা নমুনা আমি দেই। শুটিং এর প্রথম দিন স্পটকল ছিল ভোর ৪টায় কাওরান বাজারে। সবাইকে অবাক করে দিয়ে ভোর সাড়ে তিনটায় যে লোকটা হাজির হন সে আমাদের সবার প্রিয় চঞ্চল ভাই।’

নির্মাতা তানিম নূর আরও লিখেছেন, ‘অভিনয়ের প্রতি চঞ্চল ভাইয়ের সততা, নিষ্ঠা ও একাগ্রতা আমাদের সকলের জন্যই এক অনুকরণীয়।’

এই সিরিজে চঞ্চল চৌধুরী ছাড়াও আরও দেখা যাবে অপূর্ব, পার্থ বড়ুয়া, ইন্তেখাব দিনার, মনোজ প্রামাণিক ও সানজিদা প্রীতিকে।

উল্লেখ্য, সিরিজের সঙ্গে যুক্ত রয়েঝেন ফিল্ম সিন্ডিকেটের অন্যতম ব্যক্তিত্ব তানিম নূর। কৃষ্ণেন্দু চাকীর সঙ্গে মিলে হৈচৈ’র জন্য তিনিই নির্মাণ করছেন ‘মানি হানি টু’।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...