The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

করোনার সময়কে ধরে নির্মিত স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘নিষিদ্ধ বাসর’

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ নুরুল আলম আতিকের রচনা ও পরিচালনায় প্রকাশ পেয়েছে ‘নিষিদ্ধ বাসর’ নামে স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র। এতে প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন অভিনেত্রী নাজিফা তুষি ও মনোজ কুমার প্রামাণিক।

করোনার সময়কে ধরে নির্মিত স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘নিষিদ্ধ বাসর’ 1

‘বাঘ বন্দি সিংহ বন্দি’ সিরিজের ৫টি স্বল্পদৈর্ঘ্যর একটি হলো এই ‘নিষিদ্ধ বাসর’। করোনার সময়কে ধরেই নির্মিত হয়েছে প্রতিটি চলচ্চিত্র। ‘নিষিদ্ধ বাসরে’র গল্পে দেখা যাবে মিথ্যা পরিচয়ে নারী পাচারকারী দলের সদস্য মনোজের সঙ্গে বিয়ে হয় তুষির। বিয়ের কারণই হলো তাকেও পাচার করে দেওয়া। সবকিছু ঠিকঠাক হওয়ার পরপরই দেশে করোনার আঘাত হানে। তখন সব বিদেশী ফ্লাইট বন্ধ হয়ে যায়। এরপর কী ঘটে? সদ্য বিয়ে হওয়া স্বামীর প্রকৃত রূপ কি জানতে পারেন তুষি? কীভাবে নারী পাচারকারী এই দলের থাবা হতে মুক্তি পাবেন তুষি? এরকম অনেকগুলো প্রশ্নের উত্তর পাওয়া যাবে নিষিদ্ধ বাসরে, যেটি ইতিমধ্যেই প্রকাশ পেয়েছে ওটিটি প্ল্যাটফর্ম বিঞ্জের পর্দায়।

তুষি জানিয়েছেন, বিঞ্জে আসার পর হতেই তিনি বেশ সাড়া পাচ্ছেন। ইতিমধ্যে অনেকেই প্রশংসা করেছে তার এই কাজটির। পাশাপাশি তার অভিনয়েরও প্রশংসা করেছেন। তিনি বলেন, গল্পটা করোনার এই সময়কে ঘিরেই। তবে এখানে নারী পাচারের একটা ভয়াবহ গল্প তুলে ধরা হয়েছে সমাজের সামনে।

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালে লাক্স চ্যানেল আই সুপার স্টার প্রতিযোগিতায় ফার্স্ট রানার আপ-এর খেতাব অর্জন করেন নাজিফা তুষি। ২০১৬ সালে রেদওয়ান রনি পরিচালিত নাজিফা তুষির ‘আইসক্রিম’ সিনেমাটি মুক্তি পায়। তারপরই সবার নজর কাড়েন এই অভিনেত্রী। বেশ কিছু বিজ্ঞাপনেও কাজ করেছেন তুষি।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...