The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

এক কবুতর বিক্রি হলো ১৭ কোটি টাকায়!

এই কবুতরের নাম নিউ কিম

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ বেলজিয়ামে নিলামে একটি কবুতর বিক্রি হয়েছে প্রায় ২০ লাখ ডলারে একটি মেয়ে কবুতর। যা বাংলাদেশী টাকায় প্রায় ১৭ কোটি টাকা!

এক কবুতর বিক্রি হলো ১৭ কোটি টাকায়! 1

এই কবুতরের নাম নিউ কিম। এই কবুতরটির বয়স দুই বছর। গত রবিবার এটি বিক্রির জন্য বেলজিয়ামে নিলামে তোলা হয়। চীনের এক ধনাঢ্য ব্যক্তি শখের বশে কবুতরটি কিনে নিয়েছেন।

বিশেষ প্রজাতির এই কবুতরটি ‘রেসিং পিজন’ হিসেবে অধিক পরিচিত। এই প্রজাতির কবুতর এতো দামে বিক্রির ঘটনা এটিই প্রথম।

এই বিশেষ প্রজাতির কবুতর ওড়ার প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে থাকে। সাধারণত কবুতরগুলোকে ১০০ হতে ১ হাজার কিলোমিটার দূরত্বের কোনো স্থানে ছেড়ে দেওয়া হয়। সবচেয়ে আগে উড়ে যে বাড়ি পৌঁছাবে, সেই বিজয়ী। আর তখন মোটা অঙ্কের অর্থ মিলবে তার মালিকের।

কবুতরের এই প্রতিযোগিতায় সর্বশেষ বিজয়ী আর্মান্ডো, যাকে পরে ফর্মুলা ওয়ান রেস চ্যাম্পিয়ন লুইস হ্যামিলটনের নামে নামকরণও করা হয়।

নিউ কিমও ২০১৮ সাল হতে বেশ কটি প্রতিযোগিতায় জিতেছে এবং তারপর সে অবসরে গেছে। অবসর জীবনে বেশ কিছু ছানার জন্মও দিয়েছে সে। নিউ কিমের মালিক একটি বেলজিয়ামের এক পরিবার। এই বিপুল পরিমাণ অর্থে কবুতরটি বিক্রি হওয়ায় রীতিমতো বিস্মিত সবাই। যে চীনের ধনাঢ্য ব্যক্তি তাকে কিনেছে, তার শখই হলো রেসিং পিজন সংগ্রহ করা।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি চীনে পিজন রেসিং খুবই জনপ্রিয়তা পেয়েছে। নিউ কিম মেয়ে কবুতর হওয়ায় তার দাম এতো বেশি। কারণ হলো তাকে এই প্রজাতির কবুতর প্রজননে কাজে লাগানো সম্ভব।

নিলামে বিজয়ী চীনা নাগরিক নিউ কিমকে এই প্রতিযোগী প্রজাতির কবুতর প্রজননে কাজে লাগাবেন বলে মনে করা হচ্ছে।

তথ্যসূত্র : বিবিসি বাংলা।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

Loading...