The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

পপ তারকা শাকিরা তিন হাজার কোটি টাকার মালিক!

৪৩ বছর বয়সী পপ তারকা শাকিরা ‘ওয়াকা ওয়াকা’ গানের মাধ্যমে পুরো বিশ্বকে মাত করেছিলেন

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ ‘ওয়াকা ওয়াকা’ গান খ্যাত পপ তারকা শাকিরা তিন হাজার কোটি টাকার মালিক! গান বিক্রির এই টাকা দিয়ে স্পেনের বার্সেলোনা, যুক্তরাষ্ট্রের মিয়ামি, উরুগুয়ে ও বাহামার নাসাওতে কয়েকটি বাড়িও কিনেছেন তিনি।

পপ তারকা শাকিরা তিন হাজার কোটি টাকার মালিক! 1

৪৩ বছর বয়সী পপ তারকা শাকিরা ‘ওয়াকা ওয়াকা’ গানের মাধ্যমে পুরো বিশ্বকে মাত করেছিলেন। কলম্বিয়ান এই শিল্পীর প্রায় ৭ কোটি রেকর্ড বিক্রি হয়েছিল, যা ছিল এ যাবত কালের বিশ্বরেকর্ড। গান বিক্রির এই টাকা দিয়ে স্পেনের বার্সেলোনা, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মিয়ামি, উরুগুয়ে ও বাহামার নাসাওতে কয়েকটি বাড়িও কিনেছেন এই পপ তারকা।

বার্সোলেনায় শাকিরার দুটি বাড়ির একটি ৩ হাজার ৮০০ স্কয়ার মিটার। সেখানে রয়েছে অত্যাধুনিক সরঞ্জামসহ জিম, টেনিস কোর্ট, বিশাল সুইমিংপুল, সিনেমা হল ও একটি কনফারেন্স রুমও। ক্যাম্প ন্যু স্টেডিয়ামের পাশে শাকিরার বাড়িটি ১৩ হাজার স্কয়ার মিটারের। সেখানে হাঁটার জন্য একটা সবুজ চত্বরও রয়েছে। বিকেলে আড্ডা ও খাওয়া-দাওয়ার ব্যবস্থাও রয়েছে। সেই সঙ্গে রয়েছে দুটি সুইমিংপুল এবং একটি প্যানারোমিক কিচেন।

অপরদিকে মিয়ামিতে শাকিরার যে বাড়িটি রয়েছে, তার দাম কম করে হলেও ১৫ কোটি টাকা হবে। এটি অবশ্র অতোটা বড় নয়। মাঝে-মধ্যেই এই বাড়িতে বেড়াতে আসেন শাকিরা। সমুদ্রের দিকে মুখ করা এই বাড়ির টিক পাশেই থাকেন জেনিফার লোপেজ, কেভিন ক্লেইন ও ম্যাট ডেমনরা। এক বছরের বেশি সময় ধরে বাড়িটি বিক্রির চেষ্টা করে আসছেন শাকিরা। বাহামার নাসাওয়ে শাকিরার বাড়িটি হলো একটি দ্বীপ। এই বাড়ির দাম প্রায় ৪০০ কোটি টাকার মতো।

আর সবকিছু মিলিয়ে শাকিরার মোট সম্পদের পরিমাণ ৩ হাজার কোটি টাকা। তিনি নাম লিখিয়েছেন বিশ্বের সেরা ধনী নারীদের তালিকাতে। ২০১১ সাল হতে স্প্যানিশ ফুটবলার জেরার্ড পিকের সঙ্গেই তার বসবাস। মিলান ও শাশা নামে তাদের দুই সন্তান রয়েছে।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...