The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

১৬ জুলাই মুক্তিপাচ্ছে ‘কেজিএফ টু’

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ অবশেষে অপেক্ষার পালা শেষ হলো! কন্নড় সুপারস্টার ইয়াশের বহুল প্রতীক্ষিত ‘কেজিএফ: চ্যাপ্টার টু’ সিনেমার মুক্তির তারিখ ঘোষণা করা হলো। ২০২১ সালের ১৬ জুলাই বিশ্বব্যাপী প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাবে এই সিনেমাটি।

১৬ জুলাই মুক্তিপাচ্ছে ‘কেজিএফ টু’ 1

পূর্বনির্ধারিত সময় মোতাবেক, টুইটার হ্যান্ডেলে একটি নতুন পোস্টার শেয়ার করেন ইয়াশ। সেখানে ভক্তদের উদ্দেশে ক্যাপশনও জুড়ে দেন, দ্রুত সিট বেল্ট বাঁধুন, কারণ তারিখ নির্ধারিত হয়েছে। পোস্টারে দেখা যায় যে, অস্ত্র হাতে ইয়াশ ওরফে রকি ভাই ও পেছনে সিংহের স্ট্যাচু।

‘কেজিএফ: চ্যাপ্টার টু’ সিনেমায় ইয়াশ ওরফে রকি ভাই মুখোমুখি হবেন খলনায়ক সঞ্জয় দত্ত ওরফে আধীরার মুখোমুখি। ৮ জানুয়ারি ইয়াশের জন্মদিন উপলক্ষে যে টিজার প্রকাশ পায়, তাতে অবশ্য আধীরার কোনো লুক দেখানো হয়নি। সঞ্জয় দত্ত ছাড়াও এতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকায় অভিনয় করেছেন রাভিনা ট্যান্ডন, প্রকাশ রাজ এবং শ্রীনিধি শেঠি।

সম্প্রতি ভারতের বিনোদনভিত্তিক একটি গণমাধ্যম জানিয়েছে যে, মুক্তির পূর্বেই ৯০ কোটি রুপিতে হিন্দি স্বত্ব বিক্রি হয়েছে ‘কেজিএফ: চ্যাপ্টার টু’ সিনেমাটি, বাংলাদেশী মুদ্রায় যার পরিমাণ দাঁড়াচ্ছে ১০৩ কোটি টাকারও বেশি। এই স্বত্ব কিনেছে প্রযোজনা সংস্থা এক্সেল এন্টারটেইনমেন্টের কর্ণধার বলিউডের নামী পরিচালক, অভিনেতা ও প্রযোজক ফারহান আখতার এবং রিতেশ সিধওয়ানি, যারা ২০১৮ সালে ‘কেজিএফ: চ্যাপ্টার ওয়ান’ সিনেমার হিন্দি স্বত্ব কিনে আলোচনায় উঠে এসেছিলেন।

গণমাধ্যমটি আরও জানায় যে, প্রথম টিজারে ব্যাপক সাড়ার কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই দ্বিতীয় টিজার প্রকাশের কথাও ভাবছে ‘কেজিএফ টু’ টিম।

‘কেজিএফ টু’ সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন প্রশান্ত নীল এবং প্রযোজনা করেছেন বিজয় কিরগান্দুর। হিন্দি, তামিল, তেলেগু, মালয়ালাম ও কন্নড় ভাষায় কেজিএফের দ্বিতীয় কিস্তি মুক্তি পাচ্ছে।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...