The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

ভারতীয়রা এবার গাধার মাংস খাচ্ছে!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ ভারতীয় গণমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়ার এক খবরে বলা হয়েছে, ভারতের অন্ধ্র প্রদেশ রাজ্যের বেশ কয়েকটি জেলার মানুষ গাধার মাংস খাচ্ছে!

ভারতীয়রা এবার গাধার মাংস খাচ্ছে! 1

সেখানকার মানুষ দাবি করেছেন যে, এই মাংস খেলে নাকি শক্তি এবং পুরুষত্ব বাড়ে। অন্ধ্র প্রদেশ রাজ্যের গোদাবরী, কৃষ্ণ, প্রকাশম এবং গুন্টুর জেলা হতে সাম্প্রতিক সময় গাধা জবাইয়ের খবর পাওয়া যাচ্ছে। প্রতি কেজি গাধার মাংসের দাম প্রায় এক হাজার রুপির কাছাকাছি। ভারতে প্রাণীটি হত্যা অবৈধ হওয়ায় অনেকটা গোপনেই এসব কাজ করছেন অসাধু কিছু ব্যবসায়ী।

এই বিষয়ে সংশ্লিষ্টরা বলেছেন, রাজ্যের অধিকাংশ স্থানেই গাধার দুধ বছরের পর বছর ধরেই জনপ্রিয়। তবে সাম্প্রতিক সময় প্রাণীটির মাংসের ব্যাপক জনপ্রিয়তা লক্ষ্য করা গেছে।

টাইমস অব ইন্ডিয়া তাদের খবরে আরও জানিয়েছে, এই কাণ্ডের পেছনে রয়েছে অপরাধী কয়েকটি চক্র। তারা যৌথভাবে অন্ধ্র প্রদেশে গাধার মাংস বেচাকেনা করছে। যারমধ্যে একটি দল আবার মাংস সংগ্রহের কাজ করে, অপরটি গাধা বধ করে ও ক্রেতাদের কাছে সেই মাংস বিক্রি করে।

এই বিষয়ে কানাডাভিত্তিক একটি প্রাণী উদ্ধার সংস্থার (এনজিও) কর্মকর্তা গোপাল আর সুরবাথুলা বলেছেন, অন্ধ্র প্রদেশ হতে গাধা প্রায় বিলুপ্তির পথে। সে কারণে রাজস্থান, তামিলনাড়ু, উত্তরপ্রদেশ, মহারাষ্ট্র ও কর্ণাটক হতে প্রাণীটি সেখানে নিয়ে আসা হচ্ছে।

রাজ্য সরকারকে প্রাণীটি রক্ষায় এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে তিনি আরও বলেন, আইন প্রয়োগকারী সংস্থাকে অবশ্যই গাধাগুলোকে নিরাপদ রাখার উদ্যোগ নিতে হবে।

এই বিষয়ে পশ্চিম গোদাবরী পশুপালন বিভাগের যুগ্ম পরিচালক জি নেহেরু বাবু বলেছেন, গাধা জবাই করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ এবং যারা এই অপরাধে লিপ্ত রয়েছেন তাদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

Loading...