The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

অ্যান্ডেস পর্বতমালায় অবস্থিত প্রাচীন নগরী মাচু পিচু

পর্যটকদের কাছে এক নৈসর্গ

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ পর্যটকদের কাছে এক নৈসর্গ হলো অ্যান্ডেস পর্বতমালায় অবস্থিত প্রাচীন নগরী মাচু পিচু। করোনা মহামারির কারণে দীর্ঘ প্রায় ৮ মাস ধরে বন্ধ থাকলেও বর্তমানে মাচু পিচুর দ্বার উন্মুক্ত রয়েছে পর্যটকদের জন্য।

অ্যান্ডেস পর্বতমালায় অবস্থিত প্রাচীন নগরী মাচু পিচু 1

লাতিন আমেরিকার দেশ পেরুতে অবস্থিত এই শহরটি পর্যটকদের কাছে অনেক জনপ্রিয় একটি স্থান। এই শহরটি পুণরায় খুলে দিতে পারায় ঈশ্বরকে ধন্যবাদ দিয়ে ইনকা রীতিতে বিশেষ অনুষ্ঠানেরও আয়োজন করেছিলো পেরু কর্তৃপক্ষ।

করোনা কারণে বেশ সীমিত করা হয়েছে এই শহরটিতে আগমনের। ওই শহরে পর্যটকদের সংখ্যা কমিয়ে ৩০ শতাংশ করা হয়েছে। যে কারণে প্রতিদিন মাত্র ৬৭৫ জন পর্যটক এই শহরটিতে ভ্রমণ করতে পারবেন।

জাপানি এক পর্যটক পেরুর সরকারের কাছে বিশেষ আবেদন করার পর তার জন্য উন্মুক্ত করা হয়েছিলো মাচু পিচুর দ্বার। গত মার্চে কয়েক দিনের অবসর কাটানোর জন্য পেরুতে যাওয়ার পরিকল্পনা করেন তাকাইয়ামা নামে ওই পর্যটক। করোনা মহামারির কারণে দীর্ঘ প্রায় ৭ মাস ওই শহরের কাছাকাছি শহর অগাস ক্যালিয়েন্টেসে আটকে পড়েছিলেন তিনি।

পরে পেরু সরকারের কাছে বিশেষ আবেদন করায় তাকাইয়ামাকে গত মাসে মাচু পিচু শহরে ভ্রমণের অনুমতি দেওয়া হয়েছিলো। এ নিয়ে তাকে বেশ উচ্ছ্বসিত হতেও দেখা যায়। জাপানি ওই পর্যটকের পর এবার অন্যান্য পর্যটকরাও মাচু পিচুতে ভ্রমণের অনুমতি পেয়েছেন।

উল্লেখ্য, ১৯৮৩ সালে ইউনেস্কোর বিশ্ব ঐতিহ্যবাহী স্থানের তালিকায় স্থান করে নেয় মাচু পিচু দুর্গ। প্রাচীন ইনকা সাম্রাজ্যের সর্বশেষ স্বীকৃত ধ্বংসাবশেষ হলো এটি। প্রত্নতত্ত্ববিদদের ধারণা ১৫শ শতাব্দীতে ইনকা সম্রাট পাচাকুতির সময় এই দুর্গটি নির্মাণ করা হয়েছিলো। এখানে আসা পর্যটকরা ইনকা সাম্রাজ্যের ঐতিহ্য দেখে অভিভূত হন।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

Loading...