The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

রাতের খাবারে যে কৌশলগুলো ওজন কমাতে সাহায্য করবে

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ খাওয়ার অভ্যাস যেভাবে গড়ে তোলা যায় ঠিক সেভাবেই মানুষ অভ্যস্ত হয়ে পড়েন। যেমন যদি আপনি রাতের খাবারে কিছু কৌশল অবলম্বন করতে পারেন তাহলে আপনার ওজন কমাতে সাহায্য করবে।

রাতের খাবারে যে কৌশলগুলো ওজন কমাতে সাহায্য করবে 1

বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, দিনের বেলায় অর্থাৎ সারাদিন কম খেয়ে রাতে ভারি খাবার খাওয়া অনেকেরই অভ্যাস। এই অভ্যাসের কারণে ওজনটাও বেড়ে যায় খুব দ্রুত। তখন আবার অনেকেই রাতের খাবার একেবারেই ছেড়ে দেন। এই অভ্যাসটাও আবার ক্ষতির কারণ হতে পারে। তাহলে কী করবেন আপনি? আজ জেনে নিন কিছু কৌশল।

# ছোট ও সমতল প্লেটে রাতের খাবার খাওয়া ভালো। তাহলে খুব বেশি খাবার খেয়ে ফেলার ঝুঁকি অনেকটাই কমে যেতে পারে।

# সেদ্ধ বা কম তেল খাওয়ার চেষ্টা করুন। কারণ ওজন কমাতে চাইলে রাতে তেল ছাড়া সেদ্ধ খাবার খাওয়ার চেষ্টা করতে হবে। যদি সেদ্ধ খাবার একেবারেই আপনার ভালো না লাগে, তাহলে খুব অল্প পরিমাণে অলিভ ওয়েল কিংবা নারিকেল তেল দিয়ে খাবার রান্না করতে পারেন।

# বিকেল বেলা হালকা নাস্তা করার চেষ্টা করুন। এতে করে পেট ভরা থাকবে ও রাতে খাওয়ার সময় অতিরিক্ত খেয়ে ফেলার সম্ভাবনাও অনেকটাই কমে যাবে।

# রাতে দেরিতে না খাওয়ায় ভালো। রাত ৮টার মধ্যেই খাবার খেয়ে নিন। দেরিতে রাতের খাবার খাওয়ার অভ্যাসের কারণে ওজন বেড়ে যেতে পারে।

# টেবিলে বসে খাওয়ার অভ্যাস করায় ভালো। চেষ্টা করুন পরিবারের সঙ্গে বসে খাবার টেবিলে খাবার খেতে। খাওয়ার সময় কখনও মোবাইল ফোন ব্যবহার করবেন না ও টেলিভিশনও দেখবেন না। কারণ হলো, এতে অন্যমনস্ক হয়ে বেশি ক্যালরির খাবার গ্রহণ করার সম্ভাবনা থেকে যায়।

# খাবার খেতে বসার কিছুক্ষণ আগে এক গ্লাস পানি খেয়ে নিন। তাহলে অতিরিক্ত খেয়ে ফেলার সম্ভাবনাও কমে যাবে।

তথ্যসূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

Loading...