The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

হুয়াওয়ে আনলো হারমোনিওএস ২ অপারেটিং সিস্টেমের ৭টি নতুন ডিভাইস

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ নতুন নতুন প্রযুক্তি বাজারে ছাড়ার মাধ্যমে হুয়াওয়ে তাদের আভিজাত্য বজায় রেখে চলেছে। এবার হুয়াওয়ে বাজারে এনেছে হারমোনিওএস ২ অপারেটিং সিস্টেম সম্বলিত ৭টি নতুন ডিভাইস।

হুয়াওয়ে আনলো হারমোনিওএস ২ অপারেটিং সিস্টেমের ৭টি নতুন ডিভাইস 1

বিস্তৃত পরিসরের এই ৭টি নতুন ডিভাইসের মধ্যে স্মার্টফোন, স্মার্টওয়াচ এবং ট্যাবলেটের মধ্যে রয়েছে হুয়াওয়ে মেট ৪০ সিরিজ এর নতুন সংস্করণ এবং হুয়াওয়ে মেট এক্স২, হুয়াওয়ে ওয়াচ ৩ সিরিজ ও রয়েছে হুয়াওয়ে মেটপ্যাড প্রো।

চীনে অনুষ্ঠিত এক অনুষ্ঠানে হুয়াওয়ে আরও উন্মোচন করেছে হুয়াওয়ে ফ্রিবাডস ৪, ওপেন-ফিট অ্যাক্টিভ নয়েস ক্যানসেলেশন (এএনসি) ওয়্যারলেস ব্লুটুথ ইয়ারবাড ও দুটি অত্যাধুনিক প্রযুক্তির মনিটর– হুয়াওয়ে মেটভিউ এবং হুয়াওয়ে মেটভিউ জিটি। গ্রাহকরা যাতে বিভিন্ন পরিস্থিতিতে একাধিক ডিভাইসে ঝামেলাহীনভাবে ইন্টেলিজেন্স অভিজ্ঞতা উপভোগ করতে পারবেন, সেইজন্য হুয়াওয়ের প্রায় একশোটি স্মার্টফোন এবং ট্যাবলেটকে হারমোনিওএস ২ অপারেটিং সিস্টেমের আওতায় আনা হবে বলেও হুয়াওয়ে ওই অনুষ্ঠানে ঘোষণা করেছে।

হুয়াওয়ের নতুন এই ফ্ল্যাগশিপ স্মার্ট ওয়াচ হুয়াওয়ে ওয়াচ ৩ সিরিজ কার্ভড গ্লাস স্ক্রিণযুক্ত ও এতে রয়েছে ৩১৬এল স্টেইনলেস স্টিলের কেস। এতে আরও রয়েছে অভিনব থ্রি-ডি রোটেটিং ক্রাউন, যা বিভিন্ন স্তরের চাপ অনুভবেও সক্ষম ও ব্যবহারকারীর ইনপুট অনুযায়ী তাকে হ্যাপটিক ফিডব্যাক প্রদান করতে সক্ষম। যে কারণে এই ঘড়ি পরতে যেমন আরামদায়ক, ঠিক তেমনি এটি চালানোও খুব সহজ। হুয়াওয়ে ওয়াচ ৩ সিরিজের মাধ্যমে ফোন কল করা এবং গ্রহণ করা যায় ও স্মার্টফোনের মতো একই ফোন নম্বর এবং ডেটা প্ল্যান ব্যবহার করে গানও শোনা যায়। ভ্রমণ, প্রফেশনাল ফিটনেস এবং স্বাস্থ্য বিষয়ে বহুমুখী গাইড হিসেবে কাজ করতে এই হারমনিওএস ২ ভিত্তিক ওয়াচ হুয়াওয়ে স্মার্টফোনের সঙ্গে নির্বিঘ্নে সমন্বয় করা সম্ভব হবে।

হুয়াওয়ের নতুন মেটপ্যাড প্রো’তে রয়েছে ৯০ শতাংশ স্ক্রিন-টু-বডি রেশিওযুক্ত আকর্ষণীয় ১২.৬ ইঞ্চির ও এলইডি ফুলভিউ ডিসপ্লে, যা বর্তমান বাজারের সকল ট্যাবলেটের মধ্যে সর্বোচ্চ। হুয়াওয়ে মেটপ্যাড প্রো ১,০০০,০০০:১ উচ্চ কনট্রাস্ট রেশিওযুক্ত ও এটি ডিসিআই-পি৩ রঙের পরিসর সমর্থন করে।

হুয়াওয়ে মেটাপ্যাড প্রো এর সঙ্গে উন্মোচন করা হয় দ্বিতীয় প্রজন্মের হুয়াওয়ে এম-পেন্সিল। নির্ভুলভাবে কম সময়ে লেখার জন্য এই নতুন স্মার্ট পেন- এ প্লাটিনামের প্রলেপ দেওয়া নিব ব্যবহার করা হয়েছে।

‘হারমোনি ওএস’ মাল্টি ডিভাইস ইন্টার‍্যাকশনকে একটি ডিভাইস নিয়ন্ত্রের মতোও সহজ করে। এর মাধ্যমে অনেকগুলো ডিভাইস একসঙ্গে চালানোর সময় একটি ডিভাইস চালনার মতো সহজ মনে হয়।

‘হারমোনি ওএস ২’- এর নতুন ‘টাস্ক সেন্টার’ ফিচারের মাধ্যমে একটি ডিভাইসে অ্যাপ ইন্সটল করে বাকী ডিভাইসগুলোতে অ্যাপ ইন্সটল করা ছাড়া সেই অ্যাপ দিয়ে সংযুক্ত থাকা সব ডিভাইসে কাজ করা সম্ভব। ব্যবহারকারীগণ এই সেবাটি তাদের ইচ্ছামত যেকোনো সময় যেকোনো জায়গা থেকে গ্রহণও করতে পারবেন।

হুয়াওয়ে ছাড়া অন্য ডিভাইসকে স্মার্ট ফিচারের আওতাভুক্ত করতে হুয়াওয়ে হাইলিংককে আপগ্রেড করে এতে ‘হুয়াওয়ে ওএস কানেক্ট’ করা হয়েছে। ঘরের স্মার্ট ডিভাইসগুলো এখন হাতের এক চাপেই মোবাইল ফোনের সঙ্গে সংযুক্ত করা যাবে। ব্যাপারটা এতোটাই সহজ হবে, মোবাইলে স্পর্শ করলেই হুয়াওয়ে ওএস কানেক্ট কে সাপোর্ট করা মিডিয়া ওভেনে আপনি খাবারও তৈরি করতে পারবেন।

অপরদিকে হারমোনি ওএস ২ সর্বশেষ প্রজন্মের ইএমইউআই এর চেয়েও আরও সাবলীলভাবে কাজ করে। হারমোনি ওএস ২ মোবাইলগুলো ৩৬মাস ব্যবহারের পরও নতুন মোবাইলের গতির মতোই কাজ করে।

এই ফোনটি একসাথে চলমান অ্যাপগুলোকে ব্যকগ্রাউন্ডে রেখে দেয়, যে কারণে প্রয়োজন অনুযায়ী ব্যকগ্রাউন্ড থেকে বের করে বাকী থাকা কাজগুলো সম্পন্ন করা যাবে। ব্যবহারকারীরা যে কোনো অ্যাপ বা পেজে সর্বশেষ যেখানে কাজ করেছেন, অনেক অ্যাপ চালু থাকা সত্ত্বেও তারা পরবর্তীতে এসে ঠিক সেখান থেকেই কাজ শুরু করতে পারবে। হারমোনি ওএস ২ -তে আপগ্রেড হওয়ার পর হুয়াওয়ে মেট ৪০ প্রো ব্যবহার করে বর্তমানে শান্তিতে টানা ৫.১ ঘণ্টা গেম খেলতে পারবেন।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...