The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

ঐতিহাসিক ছবি ‘ঈশা খাঁ’তে চুক্তিবদ্ধ হলেন অপু

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ ঢালিউডে অনেকগুলো ছবিতে অভিনয় করেছেন অপু বিশ্বাস। খ্যাতিও পেয়েছেন অনেক ছবির জন্য। এবার ঐতিহাসিক ছবি ‘ঈশা খাঁ’তে চুক্তিবদ্ধ হলেন অপু।

ঐতিহাসিক ছবি ‘ঈশা খাঁ’তে চুক্তিবদ্ধ হলেন অপু 1

সম্প্রতি ঐতিহাসিক ছবি ‘ঈশা খাঁ’তে চুক্তিবদ্ধ হলেন ঢালিউডের এই জনপ্রিয় অভিনেত্রী অপু বিশ্বাস। এই কাজে যুক্ত হয়ে সন্তুষ্টও হয়েছেন অপু। তিনি একটি সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন, এখন থেকে বুদ্ধি-বিবেচনা দিয়ে কাজ করবেন, যা এতোকাল করা হয়নি।

সম্প্রতি ছবিটিতে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন অপু। এবার একটু ব্যতিক্রম ছবিতে কাজ করতে চান তিনি। অপু বিশ্বাস বলেছেন, ‘আমি হয়তো থাকবো না। কিন্তু আমার কাজ সব সময় থেকে যাবে। আমি অসংখ্য মানুষের ভালোবাসা পেয়েছি। তাদের কতোটা ভালো কাজ উপহার দিতে পেরেছি তা আমি জানি না। এখন আমি মনে রাখার মতো কাজ করতে চাই।’

এই অভিনেত্রী আরও জানিয়েছেন, এর আগে কোলকাতায় ‘শর্টকাট’, বাংলাদেশে ‘প্রিয় কমলা’ ছবিতে অভিনয় করেন তিনি। ‘ছায়াবৃক্ষ’ নামে আরেকটি ছবির কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে রয়েছে। তিনি আরও বলেন, ‘ “ছায়াবৃক্ষ” ছবিতে আমাকে একজন চা–শ্রমিকের চরিত্রে দেখা যাবে। চরিত্রটির জন্য আমাকে পুরো শরীরে একেবারে কালি মাখতে হয়েছিল। লুক তৈরি করতেই দেড়–দুই ঘণ্টা মেকআপ নিতে হয়েছে আমাকে।’

‘ঈশা খাঁ’ ছবিতে অপু বিশ্বাসের চরিত্রের নাম হলো সোনামনি। তিনি জানিয়েছেন, ২২ জুন হতে ছবিতে তার অংশের শুটিং শুরু হওয়ার কথা রয়েছে। তিনি বলেন, ‘চিত্রনাট্যও পড়ছি। যেহেতু ঐতিহাসিক চরিত্র, সেজন্য সেই সময়কার বিষয়গুলো আমাকে জানতে হচ্ছে। আমি অনলাইনেও ঘাঁটাঘাঁটি করছি। বেশির ভাগ শুটিং হবে ইনডোরেই, ক্রোমায় কাজ হবে।’

ছবির মূল গল্প এমন- ঈশা খাঁ সোনামনিকে ভালোবাসতেন। তিনি প্রেমিকাকে একটি নগর উপহার দিয়েছিলেন। সেই জায়গার নামই হলো সোনারগাঁও। এই হচ্ছে ছবির মূল গল্প। ঢাকার অদূরে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে ছবির বেশ কিছু দৃশ্য এবং একটি গানের শুটিংও করা হবে। এই ছবিতে ঈশা খাঁর চরিত্রে অভিনয় করছেন ডি এ তায়েব। এই ছবিটি পরিচালনা করবেন ডায়েল রহমান।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...