The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

স্মার্টফোন এবং ভিডিও’র কারণে বাড়ছে মোবাইল ডেটার ব্যবহার

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ এরিকসন মোবিলিটি রিপোর্টে বলা হয়েছে যে, স্মার্টফোন এবং ভিডিও’র কারণে বাড়ছে মোবাইল ডেটার ব্যবহার।

স্মার্টফোন এবং ভিডিও’র কারণে বাড়ছে মোবাইল ডেটার ব্যবহার 1

এরিকসন মোবিলিটি রিপোর্টে বলা হয়েছে, প্রতিবছর ডাটা ব্যবহারের পরিমাণ বেড়েই চলেছে। এক এক্সবাইট (ইবি) হচ্ছে ১,০০০,০০০,০০০ (১০০ কোটি) গিগাবাইট (জিবি)। ফিক্সড ওয়্যারলেস অ্যাক্সেসের (এফডব্লিউএ) মাধ্যমে ব্যবহার ছাড়া
বৈশ্বিক মোবাইল ডাটা ট্র্যাফিক ২০২০ -এর শেষে মাসে ৪৯ ইবি ছাড়িয়েছে।

ধারণা করা হচ্ছে যে, ২০২৬ এর শেষ নাগাদ এই ট্র্যাফিক প্রায় ৫ গুনের কাছাকাছি বেড়ে প্রতিমাসে হবে ২৩৭ ইবি। বর্তমানে ডেটার ৯৫ শতাংশ ব্যবহার করা হয় স্মার্টফোনের মাধ্যমে, যা আরও বাড়ছে, ছাড়িয়ে যাবে আগের সব রেকর্ড। বর্তমানে, মাসে ১০ জিবি ডেটা ব্যবহার করা স্মার্টফোনে, ডাটা ব্যবহার ২০২৬ এর শেষের দিকে পৌছাবে মাসে ৩৫ জিবি।

ফিক্সড ওয়্যারলেস অ্যাক্সেস ব্যবহারে ফাইভজি কমিউনিকেশন সেবাদানকারীরা সবার শীর্ষে কোভিড-১৯ এর বৈশ্বিক মহামারি ডিজিটালাইজেশন ও দ্রুতগতির নির্ভরযোগ্য মোবাইল ব্রডব্যান্ড কানেক্টিভিটির গুরুত্বকে আরও সামনে নিয়ে এসেছে। সর্বশেষ রিপোর্ট অনুযায়ী, ১০ জনে ৯ জন কমিউনিকেশন সার্ভিস প্রোভাইডাররা (সিএসপি) ফাইভজি উন্মোচন করেছে এবং ফোরজি অথবা ফাইভজি সমৃদ্ধ ফিক্সড ওয়্যারলেস অ্যাক্সেস (এফডব্লিউএ) সরবরাহ করে যেখানে উচ্চ ফাইবার
পেনেট্রেশনও থাকে। ক্রমবর্ধমান এফডব্লিউএ ট্র্যাফিকের সমন্বয় করা প্রয়োজন। প্রতিবেদনে ধারণা করা হচ্ছে যে, এর ব্যবহার ২০২৬ -এ বেড়ে হবে ৬৪ইবি।’

ক্রমবর্ধমান হারে আইওটি ব্যবহার

ধারণা করা হচ্ছে যে, ম্যাসিভ আইওটি প্রযুক্তি এনবি-আইওটি ও কাট-এম সংযোগগুলো ২০২১ সালের মাঝে ৮০ শতাংশ বৃদ্ধি পাবে এবং প্রায় ৩৩০ মিলিয়ন সংযোগ পর্যন্ত পৌছাবে। আশা করা যায়, ২০২৬ সালের মধ্যে সকল সেলুলার আইওটি সংযোগের প্রায় ৪৬ শতাংশ হবে এই প্রযুক্তি। খবর সংবাদ বিজ্ঞপ্তির।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...