The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

মেহজাবিনের নতুন নাটক ‘চুমকি চলেছে….’!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ ঈদ এলেই নাটক পাড়ায় ব্যস্ততা লেগে যায়। এবার করোনার কারণে আগে থেকেই বেশ কিছু নাটকের কাজ শেষ হয়েছে। এবারের ঈদে মেহজাবিনের নতুন নাটক ‘চুমকি চলেছে….’!

মেহজাবিনের নতুন নাটক ‘চুমকি চলেছে....’! 1

নাটকটির কাহিনী এমন: অভিজাত করপোরেট অফিসে চাকরি করেন চুমকি (মেহজাবিন)। এটি মার্কেটিংয়ের কাজ। যদিও তার মাথায় মার্কেটিং নিয়ে ধ্যান-জ্ঞান একেবারেই কম। বিপরীতে অভিনয়ের প্রতিই তার বেশি ঝোঁক!

নাটক-সিনেমায় অভিনয় নয়, চুমকি তার অভিনয় প্রতিভা কাজে লাগান কর্মক্ষেত্রেও। যে কোনও কাজ অর্জনের জন্য চরম মিথ্যা গল্পের আশ্রয়ও নেন এবং সেটি কাজে না আসলে উচ্চস্বরে কান্নাও শুরু করে দেন! তার কান্নায় যেনো মন গলে না- এমন মানুষ পাওয়া যাবে না।

ঠিক এমনই এক অদ্ভুত চরিত্র নিয়ে এবারের ঈদে হাজির হবেন মেহজাবিন চৌধুরী। যিনি এর আগেও বৈচিত্র্যময় নানা চরিত্রে অভিনয় করে বহুবার প্রমাণ রেখেছেন নিজেকে। তার এবারের নাটকটির নাম ‌‘চুমকি চলেছে….’। সিএমভি’র ব্যানারে নির্মিত বিশেষ এই নাটকটি রচনা করেন রুম্মান রশীদ খান। আর এটি নির্মাণ করেছেন মহিদুল মহিম।

এই নাটকে মেহজাবিন চৌধুরীর বিপরীতে অভিনয় করেছেন খায়রুল বাসার। যাকে নাটকে দেখানো হবে একজন আমেরিকা প্রবাসী মেহজাবিনের প্রেমিক চরিত্রে।

নাটকটি সম্পর্কে নির্মাতা মহিম বলেছেন, ‘গল্পের ভিন্নতা রয়েছে। মেহজাবিন আপুর চরিত্রটি দারুণ মজার এবং চ্যালেঞ্জিংও। ঈদ আয়োজনে নাটকটি দর্শকদের মনে আলাদা জায়গা করে নেবে বলে আমার ধারণা।’

প্রযোজক এস কে সাহেদ আলী পাপ্পু জানিয়েছেন, ঈদ উপলক্ষে সিএমভি’র ব্যানারে নির্মিত হচ্ছে অন্তত এক ডজন তারকাখচিত নাটক। যার মধ্যে অন্যতম হলো ‘চুমকি চলেছে…’। সবগুলো কাজ ঈদের ৭ দিনে ধারাবাহিকভাবে উন্মুক্ত হবে প্রতিষ্ঠানটির ইউটিউব চ্যানেলে।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর

অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...