The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

বিয়ের দাওয়াতে এসে বেশি খাওয়ায় দাম দিতে হচ্ছে অতিথিকে!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ এমন কথা আগে কখনও কল্পনাও করা যায়নি। ঠিক তেমনই একটি ঘটনা সবাইকে হতবাক করেছে। ভারতের একটি বিয়ে বাড়িতে গিয়ে বেশি খাওয়ায় অতিথির কাছে দাম দাবি করেন বিয়ের আয়োজকরা!

বিয়ের দাওয়াতে এসে বেশি খাওয়ায় দাম দিতে হচ্ছে অতিথিকে! 1

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম রেডিট’-এ এমন একটি উদ্ভট অভিজ্ঞতার কথা শেয়ার করেছেন এক ব্যক্তি। যদিও নবদম্পতি আগেই ঘোষণা করেছিলেন দাম দিয়েই খেতে হবে তাদের বিয়ের খাবার। এমন অভিজ্ঞতা অতীতে কারও জানা না থাকলেও ভারতের একটি রাজ্যে সম্প্রতি ঘটেছে এমন একটি আজব ঘটনা। পরিচিতের বিয়েতে গিয়ে এক টুকরো কেক বেশি খেয়ে ফেলায় এমন ঘটনার শিকার হন সেই অতিথি।

বিয়ের দিন নবদম্পতি ঘোষণা করেছিলেন যে, নিমন্ত্রিতদের টাকায় কাটা হবে বিয়ের কেক। অর্থাৎ কেক কাটার পর কেকের টুকরো হাতে তুলে নেওয়ার আগেই তার দাম দিতে হবে! সেই মোতাবেক, টুকরো প্রতি কেকের দাম রাখা হয়েছিল ৩.৬৬ পাউন্ড (ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ৩৭০ টাকা)! খুশির দিন হওয়ায়, প্রত্যেকেই তাতে রাজিও হয়েছিলেন। সব কিছু ভালোভাবেই শেষও হয়েছিল।

তবে বিপত্তি বাঁধে তখন, যখন বিয়ের দুই দিন পর নবদম্পতি বিয়ের সিসিটিভি ফুটেজ ঘাঁটতে যান। তখনই তারা ওই অতিথিকে ফোনে জানান, “আমরা আজ বিয়ের সিসিটিভি ফুটেজ ঘাঁটছিলাম। দেখলাম যে, আপনি দু’টুকরো কেক খেয়েছেন। অথচ আপনি দাম দিয়েছেন এক টুকরোর। দয়া করে আর এক টুকরো কেকের দাম জলদি পাঠিয়ে দিন”।

এই বার্তা পেয়ে হতচকিত হয়ে যান ওই অতিথি। সামাজিক মাধ্যম ‘রেডিট’-এ নবদম্পতির ওই বার্তাটি প্রকাশ্যে নিয়ে এসে তিনি লিখেছেন, ‘বিয়েতে গিয়ে কেকের দাম দিতে হচ্ছে, এই ব্যাপারটাই তো একেবারেই বিরল। আমার সত্যিই খেয়াল ছিল না যে, কখন একটা কেক আমি বেশি খেয়ে ফেলেছি। এখন আবার আমার থেকে দাম চাইছে ওরা’!

তথ্যসূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের কাপড়ের মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

Loading...