The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

পৃথিবীর সবচেয়ে ছোট গরু সাভারের ‘রানী’ মৃত্যুর পর স্বীকৃতি পেলো!

দি ঢাকা টাইমস্ ডেস্ক ॥ পৃথিবীর সবচেয়ে ছোট গরু হিসাবে গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসের তালিকায় নাম উঠেছে বাংলাদেশের সাভারের রানীর। তবে বক্সার ভুট্টি জাতের সাদা রঙের এই গরুটি একমাস পূর্বেই মারা গেছে।

পৃথিবীর সবচেয়ে ছোট গরু সাভারের ‘রানী’ মৃত্যুর পর স্বীকৃতি পেলো! 1

সাভারের শিকড় অ্যাগ্রো ইন্ড্রাস্ট্রিজকে গত সপ্তাহে এই তালিকাভুক্তির তথ্য জানিয়েছে গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড কর্তৃপক্ষ।

সংবাদ মাধ্যমকে এই খামারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক কাজী মোঃ আবু সুফিয়ান বলেছেন, ”খবরটি জানতে পেরে আমাদের খুবই ভালো লাগছে। তবে রানী বেঁচে থাকলে আমাদের জন্য এটি আরও আনন্দের বিষয় হতো।”

পৃথিবীর সবচেয়ে ছোট গরু হিসাবে স্বীকৃতি পেতে গিনেস কর্তৃপক্ষের কাছে এই বছরের ২ জুলাই শিকড় অ্যাগ্রো কর্তৃপক্ষ আবেদন করে। তবে গিনেস কর্তৃপক্ষ নিশ্চিত হতে চাইছিল যে, গরুটি কি আসলেই ছোট গরু হিসাবে জন্ম নিয়েছে নাকি কোনো প্রকার হরমোন প্রয়োগ করে সেটিকে এরকম আকৃতি দেওয়া হয়েছে।

নিয়ম মোতাবেক, আবেদন করার ৯০ দিনের মধ্যে সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেয় গিনেস কর্তৃপক্ষ। সেই অনুযায়ী গত ১৯শ আগস্ট দুই বছর বয়সে অসুস্থ হয়ে মারা যায় খর্বাকৃতির এই গরু রানী। তার মৃত্যুর পোস্টমর্টেম রিপোর্টও গিনেস কর্তৃপক্ষের কাছে পাঠানো হয় বলে জানিয়েছেন সুফিয়ান। রানীর উচ্চতা ছিল ৫০ দশমিক ৮ সেন্টিমিটার অর্থাৎ ২০ ইঞ্চি আর দৈর্ঘ্য ছিল ৬০ দশমিক ৫৮ সেন্টিমিটার কিংবা ২৭ ইঞ্চি। রানীর ওজন হয়েছিল ২৬ কেজি।

উল্লেখ্য, ইতিপূর্বে বিশ্বের সবচেয়ে ছোট গরু হিসাবে স্বীকৃতি ছিল ভারতের কেরালা রাজ্যে মানিকিয়াম নামে একটি গরু। ২০১৪ সালে রেকর্ডে নাম ওঠা ওই গরুটির উচ্চতা ছিলো ২৪ দশমিক ০৭ ইঞ্চি। এবার রানী সেই রেকর্ড ভাঙ্গলো।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয়

# সব সময় ঘরে থাকি।
# জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে নিয়মগুলো মানি, মাস্ক ব্যবহার করি।
# তিন লেয়ারের কাপড়ের মাস্ক ইচ্ছে করলে ধুয়েও ব্যবহার করতে পারি।
# বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর পোশাক ধুয়ে ফেলি। কিংবা না ঝেড়ে ঝুলিয়ে রাখি অন্তত চার ঘণ্টা।
# বাইরে থেকে এসেই আগে ভালো করে (অন্তত ২০ সেকেণ্ড ধরে) হাত সাবান বা লিকুইড দিয়ে ধুয়ে ফেলি।
# প্লাস্টিকের তৈরি পিপিই বা চোখ মুখ, মাথা একবার ব্যবহারের পর অবশ্যই ডিটারজেন্ট দিয়ে ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।
# কাপড়ের তৈরি পিপিই বা বর্ণিত নিয়মে পরিষ্কার করে পরি।
# চুল সম্পূর্ণ ঢাকে এমন মাথার ক্যাপ ব্যবহার করি।
# হাঁচি কাশি যাদের রয়েছে সরকার হতে প্রচারিত সব নিয়ম মেনে চলি। এছাড়াও খাওয়ার জিনিস, তালা চাবি, সুইচ ধরা, মাউস, রিমোট কন্ট্রোল, মোবাই, ঘড়ি, কম্পিউটার ডেক্স, টিভি ইত্যাদি ধরা ও বাথরুম ব্যবহারের আগে ও পরে নির্দেশিত মতে হাত ধুয়ে নিন। যাদের হাত শুকনো থাকে তারা হাত ধোয়ার পর Moisture ব্যবহার করি। সাবান বা হ্যান্ড লিকুইড ব্যবহার করা যেতে পারে। কেনোনা শুকনো হাতের Crackle (ফাটা অংশ) এর ফাঁকে এই ভাইরাসটি থেকে যেতে পারে। অতি ক্ষারযুক্ত সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকাই ভালো।

Loading...