এক নতুন তথ্য: পরোপকারে আয়ু বাড়ে!

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক ॥ নিজের ক্ষতি করেও অনেকেই পরের উপকার করে থাকেন- এমন মানুষও আমাদের সমাজে আছে। তবে পরোপকারে আয়ু বাড়ে এমন তথ্য হয়তো আরও সবাইকে পরোপকারে উৎসাহিত করবে।

life expectancy increases

মানুষকে উপকার করার কথা প্রতিটি ধর্মেই রয়েছে। অনেকেই ধর্মের এই বাণীটি বাস্তবায়নও করে থাকেন। যে যেভাবে পারেন মানুষের উপকার করে থাকেন। সেটি অর্থ সাহায্য হোক আর গতরে পরিশ্রম করে হোক। কিন্তু এই উপকার করার বদৌলতে যদি কেও দীর্ঘজীবি হয় তাহলে কেমন হবে? অবশ্য দীর্ঘজীবী হতে কে না চায় বলুন। কিন্তু কীভাবে লাভ করবেন দীর্ঘ জীবন?

সম্প্রতি যুক্তরাজ্যের গবেষকরা জানালেন দীর্ঘজীবী হওয়ার মূলমন্ত্র। এজন্য নিজেকে মানুষের সেবায় আত্মনিয়োগ করতে বললেন গবেষকরা। গবেষকরা বললেন, পরোপকারে মানুষের আয়ু বেড়ে যায়। টাইম অনলাইনের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ইংল্যান্ডের গবেষকরা জানান, যারা স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে ক্ষুধার্তকে খাদ্য দেন, পীড়িতের সেবা করেন, তারা মানসিক ও শারীরিকভাবে উপকৃত হন। আত্মকেন্দ্রিক স্বভাবের বদলে পরোপকার মানুষের আয়ু বাড়িয়ে দিতে পারে। গবেষকদের দাবি, যারা স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে কাজ করেন, তাদের কম বয়সে মৃত্যুহার স্বেচ্ছাসেবকের কাজ না করা ব্যক্তিদের তুলনায় ২২ শতাংশ পর্যন্ত কম হতে পারে।

এ প্রসঙ্গে গবেষক সুজান রিচার্ডস বলেন, পরোপকার মানুষকে বিষণ্নতা থেকে মুক্তি দিয়ে জীবনের ভালো দিকগুলো সম্পর্কে সচেতন করে তোলে। মানুষের উপকার করলে মানসিক শান্তির পাশাপাশি সামাজিকতা ও বন্ধুত্ব বাড়ে। মূলত মানসিক প্রশান্তিই মানুষকে দীর্ঘজীবী হতে সাহায্য করে- এমনটাই বলেছেন গবেষকরা। তাহলে আর দেরি কেনো? আজই নেমে পড়ুন পরোপকারে। তথ্যসূত্র: অনলাইন

Advertisements
Loading...