৯ হাজার বছর পুরোনো চিত্রকর্ম উদ্ধার যাতে অগ্নুৎপাতের হুঁশিয়ারি আঁকা আছে

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক॥ তুরস্কের প্রায় ৯ হাজার বছর আগের উপনিবেশের এক পুরাণিক মানুষের আঁকা চিত্রকর্ম উদ্ধার করা হয়েছে এতে উদ্ধারকৃত স্থান থেকে আরও ৮০ কিলোমিটার দুরের মাউন্ট হাসান পাহাড়ের অগ্নুৎপাতের বিষয়ে সাবধান বানী প্রকাশ করা আছে।


article-2478931-190EBBA600000578-825_634x418

গবেষকরা ইতোমধ্যে এই ছবি নিয়ে আরও বিস্তারিত গবেষণা চালিয়ে যাচ্ছেন তবে এটা ঠিক এই ছবিতে ঐ সময়কার মাউন্ট হাসানের অগ্নুৎপাতের বিষয়ে সাবধানতাই বর্ণনা করা আছে। সে সময় বর্তমানের মত এতো সংবাদ মাধ্যম ছিলোনা ফলে মানুষদের আশু বিপদ সম্পর্কে সচেতন করতে এভাবেই ছবি এঁকে সাবধান করা হত।

লালের মাঝে বাদামী আভার এই ছবিটি আঁকা হয়েছিল বালি, মাটি এবং পানির মিশ্রণে। ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের অগ্নুৎপাত বিশেষজ্ঞ Axel Schmitt জানিয়েছে এই ছবি ঐ সময়ের বার্তা কিংবা ঐ সময়েই আঁকা হয়েছে যখন মাউন্ট হাসানে অগ্নুৎপাতের ঐতিহাসিক উৎপত্তি হয়েছিল।

article-2478931-190F453D00000578-435_634x591

ছবিটি দেখাচ্ছে আজ থেকে প্রায় ৯ হাজার বছর আগে ঐ অঞ্চলে ভয়ংকর বিস্ফোরণ এবং অগ্নুৎপাতের ঘটনা ঘটেছিল। এই চিত্র অনেকটা কার্বন ১৪ এর সাথে মিলে যায়। কার্বন ১৪ চিত্রকর্মেও মানুষকে সাবধান করে দিয়ে ছবি আঁকা হয়েছিল যা প্রায় ১ হাজার বছর আগের।

এদিকে ছবিটি পাওয়ার পর থেকেই গবেষক Axel Schmitt মাউন্ট হাসানে অতীতের কন সময়ে অগ্নুৎপাত হয়েছে কিনা কিংবা ইতিহাসের ঠিক কোন সময়টাতে এটি সক্রিয় ছিল। মাউন্ট হাসান পাহাড়টি হাসান দাগ হিসেবেও বিশেষ পরিচিত। এর উচ্চতা ১০,৬৭২ ফুট যা এন্তলিয়া অঞ্চলে দ্বিতীয় বিশাল পর্বত।

article-2478931-190EB9D600000578-58_634x286

তুরস্কে নিওলিথিক উপনিবেশ হয়েছিল খ্রিষ্ট পূর্ব ৫,৭০০ থেকে ৭,৭০০ শতাব্দীর মাঝে, এই সময়কার কাজ হিসেবেই বিবেচনা করা হচ্ছে এই চিত্রকর্মকে। সে সময় আনুমানিক ১০,০০০ মানুষ এক সাথে বসবাস করতেন এবং তারা মাটির তৈরি মন্ডে ঘর বানিয়ে থাকতেন। গত বছর ইউনেস্কো এই উপনিবেশ এবং অঞ্চলকে বিশ্ব ঐতিহ্য হিসেবে ঘোষণা দিয়েছে।

সূত্রঃ ডেলিমেইল

Advertisements
Loading...