The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

redporn sex videos porn movies black cock girl in blue bikini blowjobs in pov and wanks off.

সুনিদ্রার জন্য ভালো এবং ক্ষতিকর দশটি খাদ্য সম্পর্কে জানুন!

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক ॥ কর্মক্লান্তি শেষে রাতে সুনিদ্রা কে না চায়। অনিদ্রা মানুষের জন্য দুঃস্বপ্নের মতই ব্যাপার। সুনিদ্রার জন্য আমাদের কিছু ব্যাপারে সচেতন থাকা উচিত। যেসব খাদ্য সুনিদ্রার জন্য ভালো সেগুলো গ্রহণ এবং যেসব খাদ্য অনিদ্রা তৈরি করে সেসব বর্জন করা। আসুন জেনে নিই সুনিদ্রার জন্য ভালো পাঁচটি এবং সুনিদ্রার জন্য ক্ষতিকর পাঁচটি খাদ্যসহ মোট দশটি খাদ্য সম্পর্কে।


sickgirlinpyjamas

সুনিদ্রার জন্য উপকারী এমন পাঁচটি খাবারঃ

১.দুধ ও খাদ্যশস্যের মিশ্রণঃ

pouring_milk_on_cereal-other1

ঘুমানোর পূর্বে কার্বহাইড্রেট এবং প্রোটিন মিশ্রিত খাবার শরীরে হ্যাপি হরমোন – সেরোটোনিন উৎপন্ন করে যা দেহে শান্তভাব আনে এবং সুনিদ্রা আনায়ন করে। সুতরাং ঘুমানোর পূর্বে খাদ্যশস্য মিশ্রিত দুধ, পনির জাতীয় খাবার গ্রহণ করুন।

২.লতাবেলঃ

Passion_fruit_red

যদিও এই ফল পাওয়া একটু কঠিনই। তবুও মার্কেটে খোজ নিলেই পাওয়া যায়। লতাবেলে আছে নিদ্রা আনায়নকারী উপাদান রয়েছে। সুতরাং দেরী কেন – ঘুমানোর পূর্বে জ্যুস কিংবা চায়ের সাথে মিক্সড করে খান।

৩.কলাঃ

banana

এই ফলে আছে ম্যাগনেসিয়াম, মিনারেল। যেসব উপাদান আমাদের পেশীর ক্লান্তি দূর করে, ঝিমানো ভাব আনে। সুতরাং সুনিদ্রার জন্য রাতে নিঃসন্দেহে কলা খাওয়া বুদ্ধিমানের কাজ।

৪.চেরী জ্যুসঃ

juice--cherry-juice--drink--glass-of-cocktail_3216463

২০১১ সালের একটি গবেষণায় দেখা গেছে চেরী জ্যুস সুনিদ্রার জন্য উপকারী। যারা প্রতিদিন দুই গ্লাস চেরী জ্যুস খান তারা অন্যান্যদের চেয়ে ৩৯ মিনিট বেশি ঘুমান। সুতরাং রাতে কমপক্ষে এক গ্লাস চেরী জ্যুস খান।

৫.গরম দুধঃ

12579

গরম দুধ ঘুমের জন্য উপকারী। দুধে থাকে ট্রিপটোক্যান নামক অ্যামিনো এসিড, যা সিডেটিভ হিসেবে কাজ করে। দুধে ক্যালসিয়ামও থাকে যা মস্তিষ্ককে ট্রিপটোফ্যান ব্যবহারে সাহায্য করে। সুতরাং ছোট বড় নির্বিশেষে রাতে গরম দুধ গ্রহণ করুন।

সুনিদ্রার জন্য ক্ষতিকর এমন পাঁচটি খাবারঃ

১.প্রোটিনঃ

lon2

শারিরীক শক্তির জন্য প্রোটিন খুব দরকারি। আশংকার খবর হচ্ছে যতবেশি প্রোটিন গ্রহণ করা হয় রাতে তত ঘুম আসে। সুতরাং রাতে ঘুমানোর পূর্বে প্রোটিন জাতীয় খাবার বর্জন করাই শ্রেয়।

২.অ্যালকোহলঃ

scotch-yum

ধারণা করা হয়, রাতে এলকোহল গ্রহণে অনিদ্রার সমস্যা দূর করা যায়। আসলে এটি একটি ভুল ধারণা, এলকোহল শরীর যতক্ষণ শরীরে কাজ করে ততক্ষণ ভালো ঘুম হতে পারে, কিন্তু নেশা কেটে গেলে ঘুম আর আসবে না। সুতরাং রাতে ঘুমানোর পূর্বে এলকোহল গ্রহণ অনুচিত।

৩.ফ্যাটযুক্ত ফাস্টফুডঃ

fast-food

সচরাসচর ফাস্টফুডে প্রচুর ফ্যাট থাকে যা পাকস্থলীতে হজমে ব্যাঘাত ঘটায়, স্নায়ুকেও উত্তেজিত করে। এইসব খাদ্য রাতে গ্রহণ করলে ঘুম কম হবে এটা নিশ্চিত। সুতরাং সুনিদ্রার জন্য রাতে এইধরনের খাদ্য এড়িয়ে চলুন।

৪.প্রচুর ঝালযুক্ত খাবারঃ

5348740-chinese-spicy-food

ঘুমের ব্যাঘাত তৈরি করে এমন সব খাবার যেমন প্রচুর ঝালযুক্ত খাবার এড়িয়ে চলুন। প্রচুর ঝালযুক্ত খাবার শরীরের তাপমাত্রা বৃদ্ধি করে, স্নায়ুকে উত্তেজিত করে।

৫.ক্যাফেইনঃ

A_small_cup_of_coffee

ক্যাফেইন এমন এক প্রকৃতিজাত রাসায়নিক, যা কেন্দ্রীয় স্নায়ুতন্ত্রকে উদ্দীপিত করে। যারা ক্যাফেইনের প্রতি সংবেদনশীল তাদের ঘুম সুখকর হয় না। ঘুমের আগে ক্যাফেইন জাতীয় খাবার চা-কফি পান করলে অনিদ্রা হতে পারে। এসব এড়িয়ে খাদ্য এড়িয়ে চলুন।

শারিরীক এবং মানসিক সুস্থতার জন্য সুনিদ্রার কোন বিকল্প নেই। সুতরাং সুনিদ্রার জন্য ভালো পুষ্টিকর খাবার গ্রহণের সাথে যেসব খাদ্য ঘুমের জন্য ক্ষতিকর যা এড়িয়ে চলার অভ্যাস করা উচিত।

তথ্যসূত্রঃ ফিটনেসম্যাগাজিন

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...
sex không che
mms desi
wwwxxx