The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

মেমব্রেন পেসমেকারঃ হৃদস্পন্দন বন্ধ হয়ে যাওয়ার দিন শেষ হয়ে এসেছে!!

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক ॥ কেমন হবে যদি আপনার হৃদপিণ্ডের উপর একটি অতি পাতলা পর্দা বসিয়ে দেওয়া হয় যা আপনার হার্ট-বিটকে সার্বক্ষণিক নিশ্চিত করবে। স্পষ্টত এমনটিই হবে ভবিষ্যতের পেসমেকার যা সফলভাবে খরগোশের হৃদপিণ্ডের উপর পরীক্ষা করা হয়েছে।


University-of-Illinois-Heart-Membrane-537x357

ইউনিভার্সিটি অফ ইলিনইস এবং ওয়াশিংটন ইউনিভার্সিটি সেইন্ট লুইস এর গবেষকরা পরবর্তী প্রজন্মের এই পেসমেকার তৈরি করেছেন। পেসমেকারের প্রাথমিক নকশাটি কম্পিউটারে মডেল করা হয়। তারপর ত্রিমাত্রিক ছাঁচে একে তৈরি করে যা খরগোশের হৃদপিণ্ডের জন্য বেশ কার্যকরভাবে উপযোগী।

abc_heart_140303_wg

তারপর গবেষকরা একে হৃদপিণ্ডের মাঝে প্রতিস্থাপন করেন এবং এটি ভালভাবে কাজ করতে থাকে। পেসমেকার হার্টবিটের দিকে লক্ষ্য রাখে এবং একটি তালিকা তৈরি করে। কখনো হার্টবিট তালিকার বাইরে চলে গেলে, সাথে সাথে ইলেকট্রোডগুলো হৃদপিণ্ডের পালসকে সঠিকভাবে পরিচালিত করা শুরু করে। দুরারোগ্য হার্টের রোগে ভুগছেন, বিশেষকরে অনিয়মিত হার্টবিটের যেসব রোগী তাদের জন্য ভালো সমাধান হতে পারে এই পেসমেকার।

হৃদপিণ্ড নিয়ে আরো পড়ুনঃ ফ্রান্সে প্রতিস্থাপিত হল পৃথিবীর ইতিহাসে প্রথম কৃত্রিম হৃদপিণ্ড!

University-of-Illinois-Heart-Membrane-Make-Up

মেমব্রেন বা অতিপাতলা পর্দার এই পেসমেকারটিকে ইতিমধ্যেই পরীক্ষা করা হয়েছে খরগোশের হৃদপিণ্ডের উপর, সেখানে এটি ভালো ফল দেখিয়েছে। কিন্তু মানুষের শরীরে একে পরীক্ষা করার জন্য আরো গবেষণার প্রয়োজন আছে বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা। তবে আমরা আশা করতে পারি ৫ থেকে ১০ বছরের মাথায় এর ব্যবহার শুরু হবে। গবেষকরা মানুষের হৃদপিণ্ডের জন্য সঠিক আকার ও আকৃতির চেষ্টা করছেন যেন তা খুব ভালভাবে হৃদপিণ্ডে আঁকড়ে থাকতে পারে।

মেমব্রেন পেসমেকার সম্পর্কে আরো জানতে দেখুন নিচের ভিডিও

তথ্যসূত্রঃ দি টেক জার্নাল

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...