The Dhaka Times
তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে রাখার প্রত্যয়ে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সামাজিক ম্যাগাজিন।

ত্রিশ ঊর্ধ্ব মহিলাদের হৃদপিণ্ডজনিত রোগবালাইয়ে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি বেশি থাকে

দি ঢাকা টাইমস্‌ ডেস্ক ॥ চিকিৎসকরা বলেন ৩০ বছরের বেশি বয়সের মহিলাদের ব্যায়ামের ঘাটতি হলেই তাদের হৃদপিণ্ডজনিত রোগবালাইয়ের সম্ভাবনা বেড়ে যায়। অস্ট্রেলিয়ায় সাম্প্রতিক এক গবেষণায় এই তথ্যটি জানা গিয়েছে।


B70804 Older Woman bent over with Pain in the Chest

গবেষণায় দেখা যায় যে, প্রায় ৩০০০ ত্রিশের বেশি বয়স্ক মহিলার ব্যায়ামের ফলে তাদের জীবন রক্ষা করা গিয়েছে। অকর্মণ্য থাকার ফলে মহিলাদের হৃদপিণ্ডের রোগের ঝুঁকি বেড়ে যায়। কারণ তাদের শরীরের ওজন বৃদ্ধি পায় পুরুষের চেয়ে বেশি দ্রুততার হারে। তাদের এই স্থূলতা শরীরের উপর বিশেষ করে হৃদপিণ্ডের রোগের কারণ হতে পারে। কম ব্যায়াম করা কিংবা শারীরিক পরিশ্রম কম করার ফলে শরীরের মেদ বৃদ্ধি পাওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়। এই সম্ভাবনাটি আবার পুরুষের চেয়ে নারীদের ক্ষেত্রে বেশি হয়ে থাকে।

অস্ট্রেলিয়ার কুইন্সল্যান্ড ইউনিভার্সিটির একদল গবেষক প্রায় ৩০০০ মহিলার উপর গবেষণা করেন যাদের জন্ম যথাক্রমে ১৯২০, ১৯৪০ এবং ১৯৭০ সাল। তারা দেখতে পান যে, ৩০ বছর বেশি বয়সের মহিলাদের ক্ষেত্রে ধূমপান হৃদপিণ্ডজনিত রোগ সৃষ্টি করে সবচেয়ে বেশি। সে যাই হোক মহিলারা দিনকে দিন বৃদ্ধ হতে থাকে এবং তারা ধূমপান ত্যাগ করতে শুরু করে। কিন্তু অতীতের অনেক বেশি ধূমপানের প্রভাব শরীরে এসে পড়ে যখন তারা বৃদ্ধ বয়সে উপনীত হয়।

গবেষকরা বলেন, ধূমপানের বিরুদ্ধে দিনকে দিন জনসচেতনতা বৃদ্ধি পাচ্ছে কিন্তু সে তুলনায় শারীরিক ব্যায়ামের প্রতি মানুষের আসক্তি কিংবা সচেতনতা সেভাবে বৃদ্ধি পাচ্ছে না। চিকিৎসকরা বলেন, মহিলাদের শারীরিক এই স্থূলতা বৃদ্ধির এই ত্রুটিটিকে চিকিৎসাবিজ্ঞানের ভাষায় বলা হয়, সিনড্রেলা রিস্ক ফ্যাক্টর। ইউনিভার্সিটি সেন্টার রিসার্চ অব এক্সার্সাইজ গবেষক ওয়েন্ডি ব্রাউন বলেন, আমাদের লক্ষ্য এখন মধ্য বয়সী মহিলাদের দিকে লক্ষ্য রাখা যেন তারা শেষ বয়সে রোগমুক্ত জীবনযাপন করতে পারেন। ওয়েন্ডি ব্রাউন তার এই লক্ষ্যমাত্রার কথা তুলে ধরেন বিবিসি নিউজের কাছে।

Risk_Cubes

তিনি বলেন, একজন মধ্য বয়সী নারী যদি তার সারাদিনের মধ্যে একটি নির্দিষ্ট সময়ে অন্তত ৩০ থেকে ৪৫ মিনিট ব্যায়াম করতে পারেন তবে তার স্বাস্থ্যগত বিশেষকরে হৃদপিণ্ড অনেক সুস্থ থাকবে। এর ফলে নিয়মিত ব্যায়াম করা ব্যক্তিটি হৃদপিণ্ডজনিত অনেক রোগ থেকে মুক্ত থাকতে পারবেন। আন্তর্জাতিক স্বাস্থ্য নীতি অনুসারে ১৯ থেকে ৬৪ বছর বয়স্ক মানুষের সপ্তাহে অন্তত ১৫০ মিনিট শারীরিক ব্যায়াম করা উচিত। অর্থাৎ প্রতিদিন অন্তত ৩০ মিনিট করে সপ্তাহে ৫ দিন ব্যায়াম করা উচিত।

তথ্যসূত্রঃ বিবিসি

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
Loading...